গ্যালারি

রেসিপিঃ ইলিশ ধুন্দুলের যুগল পারপরমেন্স


ইলিশ এমন একটা মাছ, যে কোন ভাবেই রান্না করলে খেয়ে আনন্দ পাওয়া যায়! খালি মাছ ভাঁজা, সামান্য ঝোলে রান্না, বা যে কোন তরকারী দিয়ে রান্না, সব কিছুতেই চালানো যায়! এই জন্য মনে হয় বা হয়ত কবি বলেছেন, ‘মানুষের রাজা পুলিশ, মাছের রাজা ইলিশ!’ যাই হোক, আজকাল হাতে তেমন সময় পাচ্ছি না, মন মরা হয়ে সময় কাটাচ্ছি, এমন সময় যেন কারো না আসে! জীবনে কিছু সিদ্ধান্ত নিতে অনেক কষ্ট সময় পার করতে হয়, আমি সেই ট্রানঞ্জেকশন পিরিয়ডের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি! মনে হয় এই বুঝি, আমি আর নেই! আমি এমনিতে দুর্বল মনের মানুষ! দোয়া চাই আপনাদের।

যাই হোক, আমি থাকি না থাকি, এই দুনিয়াতে আসলে কারোই কিছু আসে যাবে না! তবে বাঁচতে হলে আমাদের সবাইকে খেয়েই বাঁচতে হবে। মরা লাশ সামনে রেখেও খেতে হয়! প্রিয় মানুষের লাশ রেখেও আমাদের খেতে হয়, এটাই দুনিয়ার নিয়ম! চলুন আজ এমনি একটা চমৎকার রান্না দেখি। এজ ইট ইজ, আমার আর সব সাধারণ রান্নার মত রান্নাই। ইলিশের অনেক রেসিপি আমি আপনাদের দেখিয়েছি, বাকী কি আছে সেটা হয়ত খুঁজতে হবে! তবে ইলিশের সাথে ধুন্দুলের রান্না হয়ত এই প্রথম। এই কম্ভিনেশনে রান্নার কারন স্বাদ দেখা এবং একটা নুতন রেসিপি আপনাদের সামনে হাজির করা! নুতন যারা রান্না করতে চাইছেন, এই রান্না তাদের সামনে ভাল দেখাবে এবং আপনারা এক্সপেরিমেন্ট হিসাবে নিজের হাত গরম করতে পারেন। যাই হোক আমি একটু ঝোল রেখেছিলাম, গরম ভাতের সাথে খেতে এবং এর সাথে অন্য কোন তরকারী আজ ছিল না! বেশ আনন্দ পেয়েছি। বিলিভ মি!

পরিমান ও পরিমাপঃ
– ইলিশ মাছ, কয়েক টুকরা, আমরা বড় ৪ টুকরা নিয়েছিলাম
– ধুন্দুল, হাফ কেজি কম বেশি, কচি হতে হবে, কচিতে হালকা একটা মিষ্টি স্বাদ আছে
– পেঁয়াজ কুঁচি, মাঝারি তিন্টে
– রসুন বাটা, দুই টেবিল চামচ
– গুড়া মরিচ, হাফ চা চামচ (ঝাল বুঝে)
– হলুদ গুড়া, হাফ চা চামচ
– লবন, পরিমান মত
– কাঁচা মরিচ, কয়েকটা
– তেল, ৫/৭ টেবিল চামচ (কম তেলে রান্না)
– পানি, ঝোল কেমন রাখবেন সেটার উপর নির্ভর করছে
– ধনিয়া পাতার কুঁচি, ইচ্ছা

প্রনালীঃ ছবি কথা বলে
20181026_131820
ছবি ১, মাছ কেটে সামান্য লবন ও হলুদ গুড়া দিয়ে মাখিয়ে সামান্য সময় রাখুন।

20181026_131913
ছবি ২, ধুন্দুল কেটে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন, যদিও ধুন্দুলে একটু বেশি পানি ধরে রাখে। ব্যাপার না!

মুলরান্নাঃ
20181026_131131
ছবি ৩, কড়াই গরম করে তেলে দিন।

20181026_131230
ছবি ৪, পেঁয়াজ কুঁচি ভাঁজুন, সামান্য লবন যোগে।

20181026_131515
ছবি ৫, পেঁয়াজ হলদে হয়ে এলে রসুন বাটা দিন, কয়েকটা কাঁচা মরিচ চিরে দিন। ভাজুন।

20181026_131708
ছবি ৬, ভাঁজা উত্তম হলে, হাফ কাপ পানি দিন। এবার মরিচ গুড়া ও হলুদের গুড়া দিন।

20181026_131812
ছবি ৭, কষান, চুলার ধার ছেড়ে যাবেন না।

20181026_131931
ছবি ৮, এবার মাছ গুলো দিন, আগুন মাঝারি আঁচে রাখুন।

20181026_132036
ছবি ৯, কিছু সময়ের জন্য ঢাকনা দিতে পারেন।

20181026_135404
ছবি ১০, এই রকম একটা অবস্থা এসে যাবে।

20181026_135526
ছবি ১১, এবার ধুন্দুল দিয়ে দিন।

20181026_135705
ছবি ১২, মিশিয়ে বা নাড়িয়ে দিন, সামান্য আর একটু পানি দিতে পারেন, যদিও ধুন্দুল থেকে পানি বের হবে। এবার মাধ্যম আঁচে ঢাকনা দিয়ে রেখে দিন মিনিট ১০ বা বেশি সময়।

20181026_141133
ছবি ১৩, হয়ে গেল। কেমন ঝোল রাখবেন, আপনার ইচ্ছা! ফাইন্যাল লবন স্বাদ দেখুন। লবন লাগলে দিন। ঝোল কমাতে চাইলে আগুন বাড়িয়ে দিন।

20181026_141214
ছবি ১৪, ধনিয়া পাতার কুঁচি ছিটিয়ে দিন।

20181026_141440
ছবি ১৫, পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত।

20181026_141505
ছবি ১৬, এই যে আপনার জন্য। গরম ভাতের সাথে নিন, খাবারের মজাই আলাদা! খাবারের স্বাদ বুঝতে এই ধরনের রান্নার জুড়ি নেই। তবে গরম গরম নিয়ে বসতে হবে। ঝোলের মজা নিতে হয়! কম তেলের রান্না গুলো একটু ফ্যাকাসে হয় কিন্তু স্বাদে মনে আনন্দ দেয়!

সবাইকে শুভেচ্ছা। আসছি আরো আরো খাবার/ রেসিপি নিয়ে।

কৃতজ্ঞতাঃ মানসুরা হোসেন

5 responses to “রেসিপিঃ ইলিশ ধুন্দুলের যুগল পারপরমেন্স

  1. খুবই পছন্দের একটা খাবার, আম্মু রান্না করতো। যদিও এই প্রবাস জীবনে স্বাদ কেমন ভুলেই গেছি প্রায়, আর ধুন্দল তো পাওয়াও সম্ভব না এখানে। 😦

    Liked by 1 person

  2. সর্ষে ইলিশ রেসিপি আছে নি ভাইজান?

    Liked by 1 person

  3. dhundol r jhinga te ami always confused thaki.amr kache 2ter test almost same lage.aktu misti vab r kacha moricher jhal khub bhalo lage,sathe jodi Elish hoi tahole to shad a digun.

    Liked by 1 person

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s