গ্যালারি

রেসিপিঃ শিং মাছের ডিম ভাঁজা/ভুনা


শিং মাছের ডিম ভুনা আমি আমার মায়ের হাতে খেয়েছিলাম বলে মনে পড়ে! প্রায় ২০/২৫ বছর এর পর এটা যে খাদ্য হিসাবে চোখের সামনে আসতে পারে সেটা কখনো ভাবি নাই! গত কয়েকদিন আগে অফিস শেষ বাসায় গেলে প্রিয়তমা স্ত্রী জানালেন, আমার কেনা শিং মাছ গুলোর পেটে অনেক ডিম হয়েছিল। তিনি সেগুলো আলাদা করে রেখেছেন, আমি চাইলে যে কোন কিছু একটা রান্না করতে পারি! আমার মনে আর আনন্দ ধরে না! আমি লেগে গেলাম! বললাম চলো ভুনা টাইপ ভাঁজি করি! ব্যস, শুধু করলাম! ছবি দেখেই অনুমান করতে পারবেন।

ওহ। এই ডিমের ছবি গুলো ফেইসবুকের দুটো পেইজে দিয়েছিলাম। মোটামুটি অনেকেই চিন্তে পেরেছেন, আমার মত বয়সীদের অনেকের এই ডিম খাবার অভিজ্ঞতা আছে। চলুন রেসিপি দেখি। স্বাদ চমৎকার।

প্রনালী ও পরিমানঃ (ছবি কথা বলে)
20180925_215322
ছবি ১, শিং মাছের ডিম।

20180925_215314
ছবি ২, মুল রান্না শুরু। পেঁয়াজ কুঁচি ও সামান্য লবন দিয়ে তেল গরম করে ভাঁজা শুরু! কয়েক টেবিল চামচ তেল দিয়ে শুরু করতে পারেন, কম হলে পরেও দেয়া যেতে পারে। কম তেলে শুরু করা হলে পরে সুযোগ থাকে! এই ধরনের ভুনায় তেল খুব বেশি হলে খেতে ভাল লাগে না!

20180925_215420
ছবি ৩, রসুন বাটা, কাঁচা মরিচ কুঁচি ও টমেটো কুঁচি! ভাল করে ভেঁজে নিতে হবে।

20180925_215639
ছবি ৪, এর পর মাছের ডিম দিয়ে দিন।

20180925_215657
ছবি ৫, চুলার ধার ছেড়ে যাবেন না, ভাল করে ভাঁজুন। তেল কম মনে হলে আরো সামান্য দিতে পারেন।  আমি এই পর্যায়ে দুই টেবিল চামচ তেল দিয়েছি, যেহেতু শুরুতে কম দিয়েছিলাম, আপনি শুরুতে সঠিক দিলে এই সময়ে আর দেয়ার দরকার নেই!

20180925_215755
ছবি ৬, সামান্য হলুদ গুড়া এবং মরিচের গুড়া (ঝাল বুঝে) দিন।

20180925_215842
ছবি ৭, ভাঁজুন। আগুন মাঝারি আঁচে।

20180925_220050
ছবি ৮, চুলার ধার ছেড়ে যাবেন না।

20180925_220533
ছবি ৯, ব্যস, ফাইন্যাল লবন স্বাদ দেখুন। লাগলে দিন।

20180925_220926
ছবি ১০, ঝরঝরে পরিবেশনা!

20180925_220931
ছবি ১১, দারুন স্বাদ। বলা চলে এই দিয়েই রাতের খাবার খেয়ে উঠেছিলাম!

সবাইকে শুভেচ্ছা। আসছি আরো আরো রেসিপি নিয়ে।
কৃতজ্ঞতাঃ মানসুরা হোসেন

ফেবুতে এই নিয়ে আলোচনা হয়েছে, অনেকে চিনতে পেরেছেন! ফেবু লিঙ্ক ১ ফেবু লিঙ্ক ২

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s