গ্যালারি

আড্ডাঃ দ্যা রুফটপ রেস্টুরেন্ট, খিলগাঁও। The Rooftop Restaurant, Khilgong (আর একটা বিশ্রী খাবারের দোকান)


টাকা থাকলেই দোকান খুলে ফেলা যায়! বটেই! আজকাল আবার নয়া ফ্যাশন, ছাদের উপরে খাবারের দোকান, যাকে উনারা রেষ্ট্রুরেন্ট বলে থাকেন! ইয়া সাজ গোজ করেন বটেই, তবে যার দিকে সত্যকারে বেশি নজর দেয়ার কথা সেটায় কোন নজর থাকে না! খাবারের মান, গুন ও পরিমান ভাল হলে যে কাষ্টকার আবারো আসবে, সেটা এই দোকান মালিকেরা কেহ বুঝতে চায় না! আমি ভেবে অবাক হই, টাকা থাকলেই কি এমন কাজ করতে হবে! মানুষ কেন দোকান, রেস্টুরেন্ট, হোটেলে খেতে যায়! সময় কাটানোর পাশাপাশি ভাল খাবার না হলে কেন মানুষ যাবে? আজকাল খিলগাঁও এলাকা খাবারের দোকানের এলাকা হিসাবে গড়ে উঠেছে! রাস্তার দুইধারে শতশত খাবারের দোকান।

অনেক দোকানেই খেয়েছি, একবার গেলে আর ২য় দফায় মন চায় না! এমন কি ফ্রী দিলেও আর যেতে ইচ্ছা হয় না! গতকাল রাতে তেমনি নুতন গড়ে উঠা একটা দোকানে খেতে গিয়েছি! খাবারের মুখে দিয়েই মনে হল টাকা গুলো জলে ফেললাম! কিন্তু তখন আর উঠে আসার উপায় নেই! ফলে চেটেছুটে কোন মতে বিল দিয়ে বের হয়ে এলাম! আমার বড় ছেলে বল্ল, আর রেস্টুরেন্ট পেলে না! বাবারে, আমিও কি জানতাম। ছাদে এমন পোজপাজ দিয়ে রেস্টুরেন্ট, খাবারের মান কি এত নিন্ম আশা করা যায়! দুঃখিত!

20180826_224327
ছবি ১, নামধাম, অসাধারণ।

20180826_214224
ছবি ২, এদের চেয়ার গুলো চমৎকার, বসে মজা।

20180826_214958
ছবি ৩, রুফটফের সোফা গুলো মন্দ নয়!

20180826_214030
ছবি ৪, খাবারের মেনু, ওয়েটার গুলোকে কোন কায়দা কানুন বা ট্রেনিং করানো হয় নাই! বিশ্রীভাবে খালি হাতে কাছে এসে মুখে মুখে ওয়ার্ডার নিয়ে যায়! সত্যতা শিখানো হয় নাই!

20180826_215301
ছবি ৫, খাবারের প্লেট নিয়ে কি বলবো, আমাদের মুরগীর খাবারের প্লেটের সাইজ এর চেয়ে ভাল! এই প্লেট মানুষের খাবারের জন্য হয় কি করে?

20180826_221915
ছবি ৬, ৮৮০ টাকার ফিস প্লটার! ছোট রেড স্নেপার (কোরাল), ছি! কত সালের পুরানো মাছ আল্লাহ মালুম! মুঝে দিয়েই ভেটকা গন্ধ!

20180826_222126
ছবি ৭, ভেজিটেবল ফ্রাইড রাইস। ২৮০টাকা, একটা ডিম দিয়েছে কি না সন্দেহ! খালি লাভ!

20180826_222121
ছবি ৮, চিকেন ফ্রাই! ৩৮০টাকা বলার কিছু দেখি না!

20180826_222140
ছবি ৯, খাবার যাই হোক, প্রথমে মুখে খুশি।

20180826_223744
ছবি ১০, খাবারের পরে সবার মুখ নিরানন্দ!

20180826_223807
ছবি ১১, বিল দেখুন! ১৫% ভ্যাট আবার! এই ভ্যাট নিশ্চয় চুরি হবে, সরকার এই সব ভ্যাট কি করে সংগ্রহ করছে!

কষ্টের টাকায় এভাবে প্রতারিত হয়ে ইচ্ছা হয় না, তবুও পড়ে যাই! নিজেরো আক্কল হয় না! তবে নিশ্চিত এদের কাছে আর খেতে যাব না, যেমনি এই এলাকার অনেক হোটেল রেষ্টুরেন্টের খাবার আর খাই না! বিশ্রী অভিজ্ঞতা না হলেই ভাল!

সবাইকে শুভেচ্ছা।

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s