গ্যালারি

রেসিপিঃ ঘরোয়া কফি, মেকিং এট নাইট টাইম (১০০০তম পোষ্ট)


গতকাল পোষ্ট লিখতে গিয়ে লক্ষ করলাম, আজ যে পোষ্ট লিখবো তা এই ব্লগের এক হাজারতম পোষ্ট হবে! নানান চিন্তার দিন কাটে, আজকাল রান্নাঘরের পাশে তেমন যেতে পারছি না, ফলে নুতন রেসিপি নিয়ে একটা পোষ্ট আশা করতে পারছি না। আজকাল সময়াভাবে (আমার অবশ্য সময় কখনো হয় না, ফাঁকে ফাঁকেই আসলে কাজ চালিয়ে যেতে হয়) রান্নার প্রতি মনোযোগ দিতে পারছি না! যাই হোক, রাতে মনে হল, ছোট একটা রেসিপি আপনাদের দেখিয়ে দেই, যদিও জানি এই রেসিপি পোষ্ট দেখলে আপনারা নিশ্চয় হাসবেন, ভাববেন এটা আবার কিসের কি! হ্যাঁ, আমি মুলত যাদের নিয়ে কাজ করি তাদের জন্য এটা হাস্যরসের কারন হলেও আমি খুশি হব! আসলে নিজের কাজ নিজে করার মধ্যে একটা আনন্দ আছে! আমার মত আপনারাও নিশ্চয় আমার মত ছোট ছোট কাজ করেন এবং সেই কাজেই আনন্দিত হয়ে থাকেন।

হ্যাঁ, রাত্রিকালিন চা/কফির কথা বলছি! যারা আমরা রাতেও পান করে থাকি, তারা এই পোষ্ট দেখে বুঝতে পারবেন কি করে কত কম সময়ে আমরা কফি বানাতে পারি! চলুন দেখে ফেলি! আমি মাঝে মাঝে রাতে কফি পান করি এবং আমার স্ত্রীও পান করেন, তবে পরিমান একটু কমেই করে থাকি! চলুন!

20180812_231158
ছবি ১, কাপ নিয়ে তাতে প্রথমেই এক চা চামচ কফি (কম বেশি) নিয়ে নেই।

20180812_231203
ছবি ২, পাশাপাশি পানি গরম করতে দিয়ে থাকি।

20180812_231328
ছবি ৩, এর পর সামান্য চিনি (চিনির পরিমান কেমন হবে তা আপনি নিজেই ঠিক করুন, আমি চিনি কম দিয়ে থাকি), কফিমেট (না থাকলে ফুল ক্রীম মিল্ক পাঊডার) এক চা চামচ বা দেড় চা চামচ দিতে হবে! একটু স্ট্রং চাইলে কফিমেট কম দিতে হবে! পানি ভাল গরম হয়ে যাবে!

20180812_231421
ছবি ৪, এবার সামান্য গরম পানি দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে।

20180812_231530
ছবি ৫, এর পর প্রয়োজনীয় গরম পানি দিন এবং ভাল করে আবারো মিশিয়ে নিন!

20180812_231547
ছবি ৬, এখানে লক্ষ করুন একটা কাপ একটু কড়া রং, এটা আমার জন্য আর একটু ফ্যাকাসে রঙের কফিটা আমার স্ত্রীর জন্য!

20180812_231618
ছবি ৭, ভালবাসা হয়ত একেই বলে!

সবাইকে আবারো আবারো শুভেচ্ছা, আপনারা আমাকে পছন্দ করেন বলেই আমি আপনাদের সাথে আছি। তবে যদি কখনো আমার ভুল হয়ে থাকে কিংবা আপনাদের কোন জবাব দিতে দেরী বা দেয়া হয় নাই, কিংবা ফোন কল করে আমার জবাব পান নাই, এমন হলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন, আই অ্যাাম সরি, আমি ক্ষমাপ্রার্থী!

আপনাদের দিন কাটুক আনন্দে এবং সাথে আমাকেও রাখবেন! সুপ্রিয় ব্যচেলর ভাই বেরাদর, পাঠক/পাঠিকা আপনাদের আরো আরো ধন্যবাদ এবং শুভেচ্ছা।

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s