গ্যালারি

আড্ডাঃ হোটেল নিরিবিলি, গাজীপুর (প্রোপাইটর – মোঃ তোতা মিয়া)


আমরা পাঁচ বন্ধু বেশ কিছু দিন আগে একবার গাজীপুরের সেই মোঃ তোতা মিয়ার হোটেল নিরিবিলিতে গিয়েছিলাম। আপনারা আশা করি হোটেল নিরিবিলির যাবতীয় তথ্য জানেন। তোতা মিয়ার হোটেল নিরিবিলি বিখ্যাত হচ্ছে প্রায় ৭০ পদের ভর্তা, ভাঁজি এবং তরকারীর জন্য। আপনি খেতে বসে মোটামুটি বাংলাদেশের যা কিছু মনে আসবে সেই সবের একটা বিরাট সমাহার পাবেন এই হোটেলে! যাই হোক আমরাও নাম শুনে শুনে মনে মনে সেই হোটেলে খাবারের একটা দিনতারিখ খুঁজে যাচ্ছিলাম, একদিন সেই সময় পেয়ে গিয়েছিলাম!

তোতা মিয়ার এই হোটেল নিয়ে বেশি কিছু বলার নাই। মানুষ চেষ্টা করলে কি করতে পারে, সেটাই একটা উদাহরণ এই হোটেল। শহরের কোলাহল ছেড়ে গ্রামে এমনি একটা কিছু করার চিন্তাও বিরাট ব্যাপার। ফলে আমি তার এই চেষ্টা উদ্দোগকে ভাল্বাসবো। তরকারী কয়পদ কিংবা স্বাদ কেমন সেটা আমি দেখতে চাইবো না! তবে এত পদের মধ্যে আপনি আপনার পদ বেছে নিয়ে একটা বেলা খাবেন, সেটাই আনন্দের। চলুন ছবি দেখি এবং ছবির ক্যাপশনে কিছু আলোচনা করি।

20171027_132109
গ্রামের মেঠোপথে আপনি হারিয়ে যেতে চাইবেন, যদি আপনি এই মাটির সন্তান হয়ে থাকেন! সবুজের হাতছানির প্রেমে আপনি পড়ই হবে।

20171027_165705
আমরা প্রায় ৪টার দিকে পৌঁছেছিলাম, ফলে তখন ভীড় তেমন একটা ছিল না। আমরা দেরী না করে খেতে বসে পড়ছিলাম।

20171027_170243
এই আঁচার আপনি বলেন আর না বলেন হাজির হয়ে পড়বে। এই বরই আঁচারের স্বাদ বেশ, মুখে রুচি এনে দিবে।

20171027_170246
শষা, লেবু, পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচ। আমাদের খাবারের অনুষঙ্গ হয়ে গেছে!

20171027_170346
সাদা ভাত।

20171027_170336
নানান পদের ভর্তা, এই প্লেটের বাইরেও আরো কিছু ভর্তা ছিল। কিন্তু মানুষ ভেদে আমাদের আর প্রয়োজন ছিল না।

20171027_170343
নানান পদের ভাঁজি। আমার কাছে এদের কাঁকরোল ভাঁজা ভাল লেগেছিলো।

20171027_170701
কোয়েল ফ্রাই।

20171027_170746
বুটের ডালে কবুতরের গোশত।

20171027_170752
আমাদের খাবারের দৃশ্য! কার আগে কে খাবে! সকালের নাস্তার পর আর বেলা ৪টা পর্যন্ত তেমন কিছু পেটে পড়ে নাই!

20171027_172514
অনেক বিখ্যাত মানুষ এই হোটেলে খেয়েছেন। তোতা ভাইয়ের সাথে আলোচনা করে জেনেছি।

20171027_172524
খুব একটা বড় জায়গা নয়। ভিতরে বাড়ি এবং রান্নাঘর। বিকেল বেলা বলে তনেকে আড্ডা দিচ্ছিলেন।

20171027_172550
খাবার গুলো এভাবে সাজিয়ে রাখা হয়, আপনি আপনার মত করে চেয়ে নিতে পারেন।

20171027_172539
বরইর আঁচার বিক্রি করে থাকেন, ৫০টাকা থেকে ২০০টাকার বৈয়াম!

20171027_172756
আমাদের ৫ জন খাবারের বিল। দাম কম নয়! একটু হিসেব করে দেখুন!

20171027_173611
আমরা যখন হোটেল থেকে বের হয়ে আসি, প্রায় সন্ধ্যা নামছিলো।

20171027_174512
বাইরে একটা পান দোকান আছে, সেই পান না খেয়ে কি পারা যায়!

আমি মোঃ তোতা মিয়া ভাইয়ের আরো আরো সাফল্য কামনা করি। একটা ব্যাপার না বললেই নয়, আমি উনার কাছে এটা সেটা জানতে একটু বেশী জিজ্ঞেস করছিলাম, হয়ত তিনিও সেটা মার্ক করছিলেন! আমাকে জিজ্ঞেস করছিলেন, আমি কি করি, আবার জেনো আসি! তার এই জিজ্ঞেসের ধরন এবং অতিথিয়েতা মনে রাখার মত! এবং বিদায় নিয়ে আসার সময় দেখি তিনি একটা আঁচারের কোটা আমাকে দিচ্ছেন, বললেন এটা আপনার জন্য উপহার। আমি নিতে চাইছিলাম না এবং দাম দিতে চাইছিলাম, তিনি কিছুতেই রাখলেন না! আঁচারের মুল্য ৫০টাকা হতে পারে কিন্তু এই কাজে তিনি আমার কাছে সারা জীবনের জন্য চিনহিত হয়ে গেলেন! আমি তাকে বল্লবো, সাব্বাস, আপনি এগিয়ে চলুন।

মোঃ তোতা মিয়া একজন পরিশ্রমী ব্যক্তি এবং তার পরিশ্রম তাকে সারা দেশে পরিচিতি এনে দিয়েছে! শুনেছি তার অনুপ্রেরনায় আরো অনেকে এমন হোটেল করেছেন। আমিও মনে করি, তিনি একজন বীর, যিনি শূন্য থেকে এখন কোটি পতি! যবুকদের আমি বলি, পরিশ্রম করো, বুদ্ধি খাটাও, সাফল্য নিকটেই!

সবাইকে শুভেচ্ছা।

2 responses to “আড্ডাঃ হোটেল নিরিবিলি, গাজীপুর (প্রোপাইটর – মোঃ তোতা মিয়া)

  1. আমি গিয়েছিলুম বছর চারেক আগে, আপনাদের মতই বেশ বেলা হয়ে গিয়েছিল। খিদের মুখে খাবার সবই ভালো লেগেছিল তবে দামের বিষয়ে আপনার সাথে একমত আমিও।

    Liked by 1 person

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s