গ্যালারি

রেসিপিঃ ফিস ফ্রাই Mackerel fish (সাধারন ও সহজ)


উল্টা পালটা মাছ কেনাতে আমার জুড়ি নেই! আসলে আমি সব ধরনের মাছ খেয়ে স্বাদ নিতে চাই! হা হা হা, আসলে আমরা যারা প্রবাসী ছিলাম বা আছি আমরা মাছ খাওয়াতে একটু ভিন্নতায় আছি, অঞ্চল ভেদে বা দেশ ভেদে মাছেরো চেহারা সুরত নানা মুখি হয়ে থাকে! আমরা যে মাছ খেয়ে সচরাচর বড় হয়ে থাকি, সেই মাছ কি আর আরব দেশে পাওয়া যাবে? না, নিশ্চয় না! যাই হোক, আমি যখন প্রথম আরব দেশে যাই, সেখানে এক প্রকারের সামুদ্রিক ম্যাক্রল ফিস খেতাম যা এখনো চোখে ভাসে। প্রথম প্রথম মুখে দিয়ে কষ্ট পেলেও এক সময়ে এই মাছ প্রিয় হয়ে উঠে! তবে তারা আমাদের মত কি আর ভেজে খেত, না! এই মাছের চামড়া কিছুটা মোটা থাকায় তারা পুড়িয়েই খেত! সামুদ্রিক মাছে কিছু লবনের পরিমান বেশী থাকত বলে হয়ত কোন মসলা পাতির দরকারই হয় না!

যাই হোক, গত কয়েকদিন আগে ‘স্বপ্ন’ দোকানে এমন ধরনের ম্যাক্রল ফিস দেখে কিনে ফেলি! ইচ্ছা হল সেই স্বাদ আবার নেয়া! তবে সরাসরি পুড়িয়ে খাবার পারি নাই, আমাকে তো বাসায় থাকতে হয়! বাইরে যত কথা বলি না কেন ঘরে কি আর কিছু বলা যায়! ভাল করে পরিস্কার করে কিছু মশলাপাতি দিয়ে ভেজে খেতে মন্দ লাগে নাই, যথারীতি সাহায্য করেছেন আমার স্ত্রী এবং তিনি খেয়েছেনও! তবে আগেই বলে নেই মাছ গুলো যে খুব একটা তাজা ছিল তা নয়! হতে পারে বছর কয়েক আগে সমুদ্র হতে ধরা খেয়ে নানান হাত বদলে আমাদের কাছে এসেছে! তবুও ভাগ্য!

চলুন ছবিতে দেখে নেই! আশা করি আপনাদের ভাল লাগবে। খুব সাধারন এবং সহজ রান্না, যারা নুতন মাছ ভাজি করতে চান তাদের জন্য ছবি গুলো হয়ে উঠতে পারে আনন্দদায়ক এবং কার্যকর।

উপকরন ও পরিমানঃ
– মাছঃ আপনার ইচ্ছা, যে কয়েকটা ভাঁজবেন
– ফিস সসঃ এক কর্ক বা কম বেশি
– হলুদ গুড়াঃ পরিমান মত
– লাল মরিচ গুড়াঃ পরিমান মত (ঝাল বুঝে, কম দেয়াই ভাল)
– জিরা গুড়াঃ পরিমান মত
– লবনঃ পরিমান মত, অনুমান
– তেলঃ পরিমান মত (কম তেলেই রান্না ভাল)

প্রনালীঃ (ছবি কথা বলে)

ছবি ১; যতদুর পরিস্কার করা যায়!


ছবি ২; পেটের নাড়ি ভুড়ি এভাবে পরিস্কার করা যেতে পারে।


ছবি ৩; লবন ও  মশলা পাতি দিয়ে দিন, সাথে কিছু তেল দিয়ে দিন।


ছবি ৪; এভাবে মেখে দিন।


ছবি ৫; কিছু সময়ের জন্য বা আধা ঘন্টা  রেখে দিন, মশলা গুলো মাছে প্রবেশ করে স্বাদ বাড়িয়ে দেবে। ফ্রীজের সাধারন তাপমাত্রাও রেখে দিতে পারেন।


ছবি ৬; তাওয়াতে তেল গরম করুন, কম তেলে।


ছবি ৭; তেল গরম হয়ে যেতে দিন।


ছবি ৮; এবার এভাবে মাঝারি আঁচে মাছ গুলো ভাঁজুন।


ছবি ৯; খুন্তি দিয়ে চেপে চেপে দিন।


ছবি ১০; এক পিট হয়ে গেলে অন্য পিট উলটে দিন।


ছবি ১১; আগুন এবং নিজে নিয়ন্ত্রনে থাকুন। মনে রাখবেন, আপনার জীবন আপনার। সামান্য ভুলে হাত পুড়ে গেলে আপনি নিজেই কষ্ট পাবেন, যারা ভাগিদার কেহ হবে না, উপরন্তু সবাই আপনাকেই বোকা ভাব্বে! কাজেই রান্নায় নিজে যথেষ্ট সতর্ক হয়ে কাজ করুন।


ছবি ১২; ব্যস, এই তো!


ছবি ১৩; জমিয়ে ফেলুন।


ছবি ১৪; খেতে বসে পড়ুন। আশা করি মন্দ লাগবে না! মাছের চামড়া সরালেই সুস্বাদু মাছের আঁশ পেয়ে যাবেন!  পোলাউ, সাদা ভাত কিংবা রুটি, সব কিছুর সাথেই চলবে!

আশা করি আপনাদের মন ভাল আছে এবং বেঁচে থাকলে যেহেতু খাবার খেতেই হবে, ফলে নিজেই কিছু কিছু রান্না করুন এবং মনে রাখবেন একদিন এই খাবার রান্নার কারনেই আপনি মানুষের ভালবাসা পাবেন।  শুভেচ্ছা সবাইকে, আমরা আসছি আরো আরো রান্না নিয়ে।

কৃতজ্ঞতাঃ মানসুরা হোসেন

Advertisements

5 responses to “রেসিপিঃ ফিস ফ্রাই Mackerel fish (সাধারন ও সহজ)

  1. ছবি দেখা যায় না কেন?

    Liked by 1 person

  2. Vaia…I am a big fan of this site…all the recipes are sooo helpful..especially because of ur hard efforts in including all the step by step photos…btw. the photos of this recipe cant be seen. Pls do sth as i wud really like to cook this fish bd style. THANKS A LOT

    Liked by 1 person

  3. Bhai, Chobi dekha jaina keno??

    Liked by 1 person

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

w

Connecting to %s