Gallery

রেসিপিঃ ঢাকাইয়া তেহারী (স্পেশাল) এবং ২৫ লক্ষ হিটের শুভেচ্ছা


গল্প ও রান্না’য় গতকাল রাতে ২৫ লক্ষ হিট হয়ে গেল! আপনাদের ভাল্বাসায় আমাদের পথ চলার শেষ নেই! আমরা বিরামহীন ভাবে চলতে চাই! সারা দুনিয়া থেকে লক্ষ লক্ষ বাংলা ভাষাভাষী বন্ধুরা কোন না কোনভাবে আমাদের এই সাইটে আসেন বলে আমরা আনন্দিত। ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের এই হিসাব আনুযায়ী বাংলাদেশ থেকে আমাদের এই সাইট এখন সব সময়েই এক নাম্বার হয়ে আছে এবং তা অনেকদিন ধরেই। এ যে আপনাদের ভালবাসা!

যাই হোক, আপনাদের সবাইকে এই মাইলফলকে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা। আপনারা আসেন বলেই এই সাইট টিকে আছে! তবে সামান্য কিছু কথা বলে যেতে চাই, এমন একটা সাইট চালানোর জন্য এখন যে স্ময় দেয়া দরকার, আমি তা দিতে পারছি না। যে পরিচর্যা করা দরকার আমি তা এখন আর করতে পারছি না। গত এক বছরে আমি জীবন জীবিকার টানে এতই ব্যস্ত স্ময় পার করছি যে, এই প্রিয় সাইটে তেমন সময় দিতে পারি নাই, সরি সরি। আজকাল রান্নাঘরেও আমি তেমন সময় দেই না! সারাদিন অফিসের খাটুনির পর আর পারছি না (পাতলা ব্যাখ্যা বটে)! এদিকে পারিবারিক বাধা তো আছেই! ৭২ ঘন্টায় যদি দিন হত!

যাই কই, আজ এই আনন্দের দিনে কোন অভিযোগ নয়, সবই কোপালের লিখন মনে করে এগিয়ে যেতে হবে! আমাকে আরো ভাল লিখতে হবে, আরো মজার খাবার রান্না করতে হবে, নানান হোটেল/ রেস্তারায় খেতে হবে, নানান জেলার নানা খাবার আপনাদের সামনে তুলে ধরতে হবে! আমি যে টার্গেট নিয়ে আপনারের হৃদয়ের কাছে যেতে চাই যেটা বাস্তবায়ন করতে হবে! আমি চাই, আমার দেশি বা প্রবাসী রান্না না জানা ভাই বোন বন্ধু আমার সাইটে আসুক এবং স্থির চিত্রে রান্নার কলা কৌশল দেখে নিজে রান্না করে মজা করে জীবন যাপন করুক। আমি নিজে এক সময়ে প্রবাসী ছিলাম, রান্না জানতাম না, আমি জানি খাবারের কষ্ট কি! অথচ হাতের কাছেই ছিল সব কিছু! শুধু রান্না না জানায় কত দুঃসময় পার করেছি!

চলুন আজ আবারো একটা মজাদার খাবারের রেসিপি দেখি, তেহারী! আমার সীমিতজ্ঞানে যা বুঝি, পুরানো ঢাকার এই জনপ্রিয় খাবার এখন আমাদের সারা বাংলাদেশে মানুষের মনে বিরাট স্থান করে নিয়েছে! আমি নিজে অনেকবার দেখেছি, মাসে এক দুইবার এই তেহারী না খেলে মনে হয় যে কি খাই নাই! তবে আমি মনে করি, এটা তেমন জটিল রান্না নয়! আপনি একবার এই রান্না ধরে ফেলতে পারলে, আপনিও এই রান্নার কারিগর হয়ে যেতে পারেন! আমরা আগেও এই রান্না অনেকবার দেখিয়েছি, আমাদের আগের রান্না গুলো দেখে নিতে পারেন। চলুন, কথা না বাড়িয়ে আবারো দেখি। আমি নিশ্চিত আপনার ভাল লাগবে এবং আপনি যদি রান্না জানেন তবুও আপনার চোখের সামনে ভেসে উঠবে অথবা রান্না না করলেও আপনার মনে দাগ কাটবে! বলতে বাধা নেই, হোটেলের খাবারের চেয়ে ঘরের রান্না দামী এবং অনেক অনেক ভালবাসার!

উপকরণ ও পরিমানঃ
– গরু মাংস, দেড় কেজি (চাইলে আরো বেশি দিতে পারেন, যারা গোস্ত প্রতি লোকমায় চাইবেন!)
– পোলাউ চাল, ১ কেজি
– আলু, হাফ কেজি

– পেঁয়াজ কুঁচি, হাফ কাপ
– আদা বাটা, দেড় টেবিল চামচ
– রসুন বাটা, দেড় টেবিল চামচ
– মরিচ গুড়া, এক চা চামচ (অনেকে এটা না দিয়ে কাচা মরিচ বাটা দিয়ে থাকেন, ইচ্ছা)
– জিরা গুড়া, ১ চা চামচ
– গোল মরিচ বাটা, আধা চা চামচ বা কম
– জয়ত্রী বাটা, হাফ চা চামচ
– জয়ফল বাটা, এক চিমটি
– বাদাম বাটা, হাফ কাপ (কাজু বাদাম বাটা হলেও চলবে)
– গরম মশলা (এলাচি কয়েকটা, দারুচিনি কয়েক পিস, লং কয়েক পিস)

– লবন, পরিমান মত
– আলু ভুখারা, কয়েকটা
– কিসমিস, দুই টেবিল চামচ
– কাচা মরিচ, আস্ত কয়েকটা
– টক দই, দেড় কাপ
– তেল, এক কাপের কম(আমি সামান্য কম তেলেই রান্না করেছি, একটু তেল বেশি দিলে রান্নার স্বাদের রিক্স বা লেগে যাবার ভয় থাকে না!)
– ঘি, দেড় টেবিল চামচ (না হলেও চলে, হলে গ্লোসি ভাব আসে)
– পানি (গরম হলে ভাল, রান্না শুরুর আগে কিছু পানি গরম করে রেখে দিতে পারেন তবে না হলে নাই, ব্যাপার না!)

প্রনালীঃ (ছবি কথা বলে)
গোশত প্রিপারেশনঃ

ছবি ১

গোশত রান্নাঃ

ছবি ২


ছবি ৩


ছবি ৪


ছবি ৫


ছবি ৬


ছবি ৭


ছবি ৮


ছবি ৯


ছবি ১০


ছবি ১১


ছবি ১২


ছবি ১৩


ছবি ১৪

মুল রান্নাঃ

ছবি ১৫


ছবি ১৬


ছবি ১৭


ছবি ১৮


ছবি ১৯


ছবি ২০


ছবি ২১


ছবি ২২


ছবি ২৩


ছবি ২৪


ছবি ২৫


ছবি ২৬, লবন দেখা!


ছবি ২৭


ছবি ২৮


ছবি ২৯


ছবি ৩০


ছবি ৩১


ছবি ৩২, পরিবেশনা।


ছবি ৩৩, আহ, স্বাদ।


ছবি ৩৪, তিন প্লেট ব্যাপার না!

সবাইকে শুভেচ্ছা। আসছি আরো আরো মজাদার রান্না নিয়ে, আপনাদের সবার আনন্দময় দিনরাত কাটুক।

বিদ্রঃ তেহারী আরো ব্যাপক একটা শাহী রান্না এখানে দেখতে পারেন!

কৃতজ্ঞতাঃ মানসুরা হোসেন (যার সময়ের সহযোগিতা হলে আরো অনেক অনেক এগিয়ে যেতে পারতাম বলে বিশ্বাস হয়)

Advertisements

3 responses to “রেসিপিঃ ঢাকাইয়া তেহারী (স্পেশাল) এবং ২৫ লক্ষ হিটের শুভেচ্ছা

  1. দারুণ!!!
    এভাবে চলতে থাকলে এক কোটি হিটও হয়ে যাবে খুব শীঘ্রই 😂😂

    Liked by 1 person

  2. Bhai panir poriman to bolun…pic 24( if I.5 kg meat and 1 kg rice) if meat 2 kg then water more need???

    Liked by 1 person

  3. অভিনন্দন, অভিনন্দন, অভিনন্দন।। এই ভাবে আরো এগিয়ে চলুক এই ব্লগ, আর আমরাও অনেক অনেক রান্নাবান্না শিখতে পারি যেন …

    Like

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s