Gallery

বৈশাখের দুপুরের খাবার ও আমাদের সাধারন আনন্দ ১৪২২!


বৈশাখের প্রথম সকালে সামান্য সময়ের জন্য আমাদের মহল্লার গলিতে বের হয়েছিলাম। যানযটের ভীড়ে সবার দেখি পাগল হবার দশা। যাই হোক, আজ জানতে পারলাম, আমরা রাম্পুরাবাসী ঢাকা দক্ষিনের ভোটের, হায়রে ঢাকা শহর! এটা কিছু হল! মানে আমরা না পাব বেহেস্ত না পাব দোযগ! পুরাই দুই কর্পোরেশনের মাঝামাঝি!

আমি গত কয়েকদিন ধরে ভাবছিলাম, আমরা রামপুরাবাসী কোন এলাকায় পড়ছি! আজ আজ রাস্তায় পোষ্টার দেখে নিশ্চিত হলাম!

বলে যাই, আমি গতকাল থেকে জ্বরে ভুগে অবস্থা প্রায় কাহিল! রাতে ভেবেছিলাম বাংলা নুতন বছর উপলক্ষে একটা কিছু রেসিপি পোষ্ট করবো কিন্তু পারি নাই। আজ সকাল থেকেও অবস্থা বেগতিক। যাই হোক, আপনারা হয়ত জানেন যে, বৈশাখ মানে আনন্দ আর সেই আনন্দ কিছু খাবার দাবার হবে না তা কি করে হয়। এক এক সময়ে এক একটা ব্যাপার আমাদের আনন্দ দিয়ে যায়, তেমনি পহেলা বৈশাখ আমাদের বাড়ীতে একটা আলাদা আনন্দ দিয়ে যায়। তা হচ্ছে, গত প্রায় ৫/৬ বছর এই দিনে আমাদের বাড়ীতে (বাড়ীওয়ালা/ভাড়াটিয়া) সবাই মিলে দুপুরের খাবার খাচ্ছে। চাদা তুলে একটা আইটেম করা হয় বাকী প্রতি বাসা থেকে একটা পদ ও সাদা ভাত! খাবার খাওয়া হয়, বাড়ির আঙ্গিনায়, মাদুর পেতে! এটা আমি নিজেও উপভোগ করি। চলুন আজকের খাবারের ছবি দেখি, যদিও আজ আমি তেমন ছবি তুলি নাই! মাত্র কয়েকটা!


জাম আলু ভর্তা।


চিংড়ি শুঁটকী ভর্তা।


লইত্যা শুঁটকী ভুনা। ঝালে ঝাল!


বেগুন বর্তা।


ডিম ভর্তা। এটা এবারে নুতন আইটেম ছিল, আশা করছি আগামী কোন রেসিপিতে এটা আপনাদের দেখিয়ে দেব।


(এই ভর্তার নাম মনে করতে পারছি না, আগামী কাল বলে দিব)


ইনি হচ্ছেন আমাদের বাড়ীওয়ালা। আপনারা অনেকে উনাকে চিনে থাকবেন (নাম উল্লেখ করছি না)। আমি সত্যি উনাকে নিয়ে ভাবি, এত বড় ষ্টার হয়ে এখনো সবার সাথে কি আন্তরিক।


এই ছবি নিয়ে ফেসবুকে আমার স্ট্যাটাস ছিলো, বৈশাখী খাবার দাবার আমাদের বাড়ীতেও হয়েছিলো রে পাগলা, তবে ইলিশ মাছ ছাড়া! পান্তা না, সবাই মিলে দুপুরের খাবার, গরম ভাত এবং নানান পদের শুঁটকী ভর্তা!


যাই হোক, রাতে কিছুটা সুস্থ্য হয়ে আমি নিজে রান্না করেছিলাম, থাই বিফ সালাদ! এই ছিল মোটামুটি আমাদের সারা দিন।

সবাইকে শুভ নববর্ষের শুভেচ্ছা। আশা করছি আপনাদের সময়ও আনন্দে কেটেছে।

6 responses to “বৈশাখের দুপুরের খাবার ও আমাদের সাধারন আনন্দ ১৪২২!

  1. Vaia apne akhon kamon asen ? Sorir ar proti jotno neben vaia.Allah r kase parthona kori Allah apnake sustho Kore tulben.

    Liked by 1 person

  2. Shuvo noboborsho. taratari shushtho hoye uthoon

    Liked by 1 person

  3. আরে, এতো দেখি কঠিন অবস্থা! আপনাদের পহেলা বৈশাখ উদযাপন দারুণ লাগলো। আশা করি অনেকেই অনুপ্রাণিত হবেন।

    Liked by 1 person

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s