Gallery

রেসিপিঃ ময়ানে কাঁচা মরিচ ভাঁজা (ঝাল যাদের প্রিয়, বাই প্রোডাক্ট)


ময়ান মানে হচ্ছে ময়দা, গোল মরিচ গুড়া, পানির একটা সংমিশ্রণ (অনেকে সামান্য পরিমান বেকিং পাউডার দিয়ে থাকেন)। এই ময়ান বাংলাদেশের নানান ভাজি জাতীয় খাবারে ব্যবহার হয়ে থাকে। এই ময়ান দিয়ে আপনি অনেক কিছু ভাঁজতে পারবেন এবং খেতে তা সুস্বাদু হবে। যাই হোক, আপনারা যারা নুতন রান্না করছেন তাদের জন্য আজকের এই বাই প্রোডাক্ট, এই রান্নাকে আমি বাই প্রোডাক্ট বলছি এই কারনে যে, এই ময়ান করা হয়েছিল অন্য কাজে (সেই রান্নাও দেখাবো), বেঁচে যাওয়া ময়ান দিয়েই এই কাঁচা মরিচ গুলো ভাঁজা হয়েছিল এবং খেতে তা সুস্বাদু হয়েছিল বলেই আমি এটাকে সেই মুল রেসিপির আগেই পোষ্ট করে দিলাম!

চলুন কথা না বলে দেখে ফেলি!

উপকরনঃ
–  কাঁচা মরিচ, কয়েকটা (ঝাল বেশি হলে একটাও মুখে দিতে পারবেন না, সুতারাং সাবধানে)
ময়ানঃ
– হাফ কাপ ময়দা
– হাফ চা চামচ গোল মরিচ
– দুই চিমটি বেকিং পাউডার (না থাকলে নাই)
– দুই চিমটি বা সামান্য বেশি লবন
– পরিমান মত পানি (ময়ান কিছুটা গাঢ় হবে)

প্রনালীঃ
ময়ান তৈরীঃ

বাটিতে ময়দা, গোল মরিচ, লবন, ও বেকিং পাউডার নিন।


ধীরে ধীরে পানি দিন এবং মিহিন করে মিশান। ময়ানের ঘনত্ব গাঢ় হতে হবে।

মরিচ প্রিপারেশনঃ

মরিচ গুলো ধুয়ে নিন, ছুরি দিয়ে লেজের দিকে ফালি করে নিন।


ফালি না করলে, ভাজার সময়ে মরিচ ফুটে আপনি আহত হতে পারেন! সুতারাং সাবধানে। যে কোন কিছু ভাজার সময়ে অধিক সাবধানতায় থাকা উচিত।


মরিচ গুলো ময়ানে চুবিয়ে রাখুন,  ভাল করে মাখিয়ে ময়ান মরিচের গায়ে লাগিয়ে নিন।

তেলে ভাজাঃ

এবার ডুবো তেলে ভাজুন।


এক পিট হয়ে গেলে অন্য পিট উলটে দিন। কেমন ভাজবেন এটা আপনি নিজে নির্ধারন করে নিন। তবে একটু কড়া ভাজাই উত্তম।

পরিবেশনাঃ

এই নিন। শিশু ও বৃদ্ধদের থেকে দূরে রাখুন!


অসাধারন স্বাদ। (বিকালের নাস্তায় দুষ্টু বন্ধুদের পরিবেশন করা যেতে পারে! হা হা হা)

ভেতরের অবস্থাঃ

আমি মোটামুটি একটা খেতে পেরেছিলাম, তাও ভাতের সাথে মেখে! আপনাদের ব্যাটারী ভাবী খেয়েছেন দুটো!

সবাইকে শুভেচ্ছা।

বি দ্রঃ মুল ময়ানে ভাঁজা হয়েছিল ইলিশ মাছ! সেটার রেসিপি আসছে! আগেই বলে নেই, অসাধারন স্বাদ হয়েছিল!

Advertisements

5 responses to “রেসিপিঃ ময়ানে কাঁচা মরিচ ভাঁজা (ঝাল যাদের প্রিয়, বাই প্রোডাক্ট)

  1. হ্যা সাহাদাত ভাই, নানা রকম ভাজি-টাজির পরে আমার মা মাঝে মধ্যে বেঁচে যাওয়া ময়ান দিয়ে এভাবে কাচা মরিচ ভাজেন। যদিও ব্যাপারটা কদাচিত ঘটে, তবুও আপনার রেসিপি দেখেই মনে এসে গেল। আমরা সেই মুল ভাজির সঙ্গেই এই বাই প্রোডাক্ট মজা করে ভক্ষন করি। 🙂

    শুভেচ্ছা নিরন্তর।

    Liked by 1 person

  2. This is a really tasty item indeed, but normally I used to take this item during the Ramadan at the time if Efter.

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন।
      হ্যাঁ, এই ধরনের আইটেম ইফতারে ভাল চলে তবে ঘরেও মাঝে মাঝে রান্না করতে পারেন। মন্দ লাগে না!
      আমার নুতন বন্ধুদের কাজে লাগবে বলে আমি রেসিপি দিয়েছি, সামান্য এই চেষ্টার কারনেও যে কোন একজন আগামীতে রান্নাবিদ হয়ে উঠতে পারে।
      শুভেচ্ছা নিন।

      Like

  3. পিংব্যাকঃ রেসিপিঃ ময়ানে ভাঁজা ইলিশ | রান্নাঘর (গল্প ও রান্না) / Udraji's Kitchen (Story and Recipe)

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s