গ্যালারি

রেসিপিঃ আইড় মাছ রান্না (ঘরোয়া সাধারণ রান্না, নূতনদের জন্য)


সাদা গরম ভাতের সাথে বেশ মজাই পাবেন! আগেই বলে নেই আমার রান্না টেষ্টার বুলেট খেয়ে অনেক ভাল বলেছে। তবে এটা পুরানো রান্নাই। এই রকম আরো অনেক রান্না আমি আগেও নেটে দিয়েছি। হাতের কাছে থাকা মশলায় খুব সাধারন রান্না। নূতনদের জন্য এটা চরম একটা রান্না শেখা হতে পারে! প্রায় সব মাছই এভাবে রান্না করতে পারেন। তবে যারা মাছ ভাঁজা ছাড়া রান্না করেন না, উনারা সামান্য তেলে আগে মাছের টুকরা গুলো ভেঁজে নিতে পারেন। আর বাদ বাকী সবই একই!

ছবিঃ স্টার বাংলা নিউজ, গুগল থেকে পাওয়া। আইড় মাছ খেতে দারুন, কাঁটা কম, শিশুরা খুব পছন্দ করে খায়।

প্রয়োজনীয় উপকরনঃ
– কয়েক টুকরা আইড় মাছ, ২৫০ গ্রাম/৩০০ গ্রাম হতে পারে
– মাঝারি চারটে পেঁয়াজ কুঁচি (পেঁয়াজ একটু বেশী হলে স্বাদ বাড়বে)
– কয়েকটা কাঁচা মরিচ
– এক টেবিল চামচ আদা বাটা,
– এক চা চামচ দেশী রসুন বাটা,
– ঝাল বুঝে হাফ চামচ মরিচ গুড়া,
– হাফ চামচ হলুদ গুড়া,
– হাফ চা চামচ জিরা গুড়া (শেষে ব্যবহার হবে)
– তেল (পরিমান মত, কম তেলেই রান্না উত্তম)
– পানি (পরিমান মত)
– লবন, পরিমান মত

প্রনালীঃ  (ছবি কথা বলে)

ছবি ১


ছবি ২


ছবি ৩


ছবি ৪


ছবি ৫


ছবি ৬


ছবি ৭


ছবি ৮


ছবি ৯


ছবি ১০


ছবি ১১


ছবি ১২


ছবি ১৩

সবাইকে শুভেচ্ছা।

Advertisements

5 responses to “রেসিপিঃ আইড় মাছ রান্না (ঘরোয়া সাধারণ রান্না, নূতনদের জন্য)

  1. সুন্দর!!!

    লাস্টে কি জিরার গুড়া দিলেন?? আমি যতদূর জানি মাছে জিরা দিলে অরিজিনাল স্মেল নষ্ট হয়ে যায়, তবে আইড় মাছ এবং বোয়াল মাছ আমার দারুণ পছন্দ ( পাঙ্গাস জঘন্য লাগে) । এই মাছগুলোর পাতলা ঝোল আমার কাছে দারুণ লাগে। একদিন সরিষা বাটা দিবেন। তাহলে একদম মাছ খাওয়ার ষোলকলা পূর্ণ হবে 😀

    শুভেচ্ছা

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ ভাতিজা।
      আমি মাছ ভাল রান্না করি। মাছ যেহেতু ভাঁজি নাই তাই জিরা দিলে তেমন ঘ্রান পরিবর্তন হবে না। আর জিরা গুড়া দিয়ে সামান্য সময়ের মধ্যেই নামিয়ে নিতে হয়। এটা শুধু ঝোলকে একটা আলাদা ফ্লেভার দেয়।

      আমি কখনো তাজা মাছ ভাঁজি না। নদীর পাঙ্গাস মজাদার যদি পাওয়া যায়। পরিবারের সবার পুষ্টির জন্যও পাঙ্গাস/তেলাপিয়া কিনতে হয়, কিছু করার নেই।

      সরিষা বাটা হাতের কাছে থাকে না বলে দেই না, তবে সরিষা বাটা যে আলাদা একটা স্বাদ আনে তা আমি দেখেছি।

      একটা রেসিপি সরিষা বাটা দিয়ে দেখিয়ে দেব, তবে ইলিশ তো আছেই।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  2. Apnar ekhane j najmul huda name e ekjon comment korten unake ekhon dekhina kno? Uni valo achen?

    Like

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s