Gallery

জন্মদিনের খাবার দাবার ও আড্ডা (ভাতিজি স্নিগ্ধা ২০১৪)


আমাদের ভাতিজি স্নিগ্ধার ১১তম জন্মদিন। স্নিগ্ধা আমাদের একজন প্রিয় বন্ধুর একমাত্র মেয়ে। আমার যতদুর মনে পড়ে ওর প্রায় গত ৮/৯ বছরের সব জন্মদিনেই আমি থেকেছি। এমন ধারাবাহিক ভাবে জন্মদিনে থাকাটাও কঠিন ব্যাপার হলেও কি করে যেন সম্ভব হয়ে যাচ্ছে। আমার বড় ছেলের জন্মদিন ছাড়া এমনভাবে ওর জন্মদিনে হাজির থাকা সত্যই আনন্দের ব্যাপার হচ্ছে। মাঝে মাঝে মনে হয়, বেঁচে থাকলে ওর আগামী প্রায় সব জন্মদিনেও থাকবো এবং ওর বিয়ের দাওয়াতটাও খেয়ে যাব! হা হা হা…। ইনশাআল্লাহ। আজকাল আমাদের এই ভাতিজি নেটেও মাঝে মাঝে আমার রেসিপির লেখা গুলো পড়ে থাকে এবং এই লিখাটাও পড়ে দেখবে বলে আশা রাখি।

এই জন্মদিনটা উযাপন ছিল একান্তই পারিবারিক এবং ঘরোয়া। তবে খাবারের বিরাট অংশটা এসেছিল বাইরে থেকে, ঘরে থেকে ছিল শুধু সালাত এবং লেবু! আয়োজনটা হয়েছিল এপার্টমেন্টের হল রুমেই। অত্যান্ত ছিমছাম অনন্দদায়ক ছিল এবারের জন্মদিনটা। চলুন কথা না বাড়িয়ে ছবিতেই দেখা যাক। যথারীতি খাবার দাবারের ছবিই বেশী। আশা করি ছবি গুলো আপনাদের আনন্দ দেবে। তবে এবারে প্লেটে বা ডিসের ছবি নয়, সরাসরি ডেকচী থেকেই! (বড় বড় ডেকচির ছবি তোলা আনন্দদায়ক আমার কাছেও) কারন এই জন্মদিনে আমি আমার মত করেই ছবি তুলতে পেরেছি, কোন লজ্জা পাওয়ার চান্স ছিল না! বিবাহ বা অন্য অনুষ্ঠানে খাবারের ছবি তোলা বিব্রত হবার চান্স থাকলেও এই জন্মদিনে তা নিয়ে চিন্তাও করতে হয় নাই। কাজে কাজেই ছবি গুলো ভাল হয়েছে।  হা হা হা! না, মোবাইলে তোলা নয়, সরাসরি স্যামসং গ্যালাক্সী ক্যামেরা দিয়ে!


সবাইকে ফুলেল শুভেচ্ছা।


বার্থ ডে বোর্ড। শুভ জন্ম দিন। হেপি বার্থ ডে টু নিশাত নায়লা গনি স্নিগ্ধা! মা মনি, আনন্দে কাটুক তোমার সারা জীবন।


এই রকম গুচ্ছানো পরিবেশ কার না ভাল লাগবে। (আমার অভিজ্ঞতা বলে জন্মদিনে সবাই একটু আগেই আসে যা সাধারণত বিবাহের দাওয়াতে দেখা যায় না। আমাদের সময়জ্ঞানটা জন্মদিনে ভাল।)


বার্থ ডে কেক। নাইস এন্ড কূল।


বাবা মায়ের সাথে। কেক কাঁটার মুহুর্ত্ত। এই আনন্দে ভেসে চলুক এই পরিবারে।


খাবার দাবার রেডী। গেট সেট গো!


ঘরে বানানো সালাত।


লেবু!


কাবাব।


চিকেন বিরিয়ানী।


শাহী মাটন রেজালা।


বোরহানী। অসাধারণ।


শাহী জদ্দা। পরতে পরতে সৌন্দর্য্য!


খাবার শেষে কেক সার্ভ।


খাবার তৈরির প্রধান কারিগর, বাবুর্চি। *এই বাবুর্চি নিয়ে আগামী কাল আমি লিখবো। বিশাল কাহিনী আছে। শুনে আপনারাও তার জন্য গর্ব করবেন।

যাই হোক, সত্য কথা বলে ফেলি। এই গত কয়েক মাসে ১০/১২টা বিবাহ ও জন্মদিনে উপস্থিত থেকে খাবার খেয়েছি, বেশ কয়েকটার গল্প এবং খাবারের ছবিও আপনাদের দেখিয়েছি। আমার কাছে এই জন্মদিনের আয়োজন এবং খাবারই সব চেয়ে উত্তম মনে হয়েছে। দুই প্লেট চিকেন বিরিয়ানী (দুই পিচ চিকেন লেগ সহ), দুইটা টিকিয়া, রেজালা এবং দুই গ্লাস বোরহানী ও এক পিস কেক খেয়েও মনে হয়েছে আরো খাই!!

এই রকম রান্না হলে আমি প্রতিদিন জন্মদিন বা বিবাহের দাওয়াত খেতে রাজী আছি! এবং এই স্বাদের খাবার খেয়ে মোটা হতেও আমার আপত্তি নেই!


(বলতে ভুলে যাচ্ছি, এই জন্মদিনের দাওয়াত আপনাদের প্রিয়, আমার রেসিপি টেষ্টার বুলেটও খেয়েছে! তার কাছেও এই জন্মদিনের খাবার বেশ মজাদার মনে হয়েছে।)

রেসিপি পাঠকদের সবাইকে শুভেচ্ছা। আপনারাও আমাদের এই মামনি স্নিগ্ধার জন্য দোয়া করবেন, বড় হয়ে ও যেন দেশের উপকার করতে পারে।

ফেবু স্ট্যাটাসঃ শাহী জদ্দা! পরতে পরতে সৌন্দর্য্য!

Advertisements

5 responses to “জন্মদিনের খাবার দাবার ও আড্ডা (ভাতিজি স্নিগ্ধা ২০১৪)

  1. মামনি স্নিগ্ধার জন্য onk onk দোয়া 🙂

    Like

  2. পিংব্যাকঃ আড্ডাঃ রাজকন্যা সিগন্ধা’র জন্মদিনে ২০১৬! | রান্নাঘর (গল্প ও রান্না) / Udraji's Kitchen (Story and Recipe)

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s