গ্যালারি

রেসিপিঃ মোরগ দোপেয়াজা (চরম স্বাদ)


মোরগ দোপেয়াজা। মোরগের কত প্রকারের রান্না এই দুনিয়াতে আছে তা কে জানে! মোরগ বা চিকেন এমনি এক প্রকারের খাবার এই দুনিয়ায় যে, এটা যে কোন ভাবে রান্না করে এমনকি আগুনে শুধু ঝলসে দিলেও দুনিয়ার বেশিরভাগ মানুষ এটা খেতে পারবে। দুনিয়ার সকল স্থানের, সকল মানুষকে মোরগ/মুরগী বা চিকেনের কাছে প্রানঢালা শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জানানো উচিত। হা হা হা… দুনিয়াতে এই প্রানী না থাকলে মানুষ এই প্রানীর বিশেষ বিশেষ খাবার থেকে বঞ্চিত হত! আহ চিকেন!

যাই হোক, চলুন আজ মোরগের দোপেয়াজা দেখে ফেলি। দোপেয়াজা কথাটার মানে হচ্ছে পেঁয়াজ বেশি দিয়ে ভুনা টাইপ কিছু। মাছ মাছালি বেশী দোপায়াজা হলে আমরা সাধারণত মোরগ বা চিকেন দোপেয়াজা করি না। এটা আমাদের একটা একক প্রচেষ্টা, স্বাদ আরো আরো বাড়াতে আমরা শেষে টমাটো সসের ব্যবহার করেছি! আপনিও এভাবে চিকেন রান্না করে দেখতে পারেন, আশা করি ভাল লাগবে। শুধু সুস্বাদু নয়, আমার মনে হয় একবার রান্না করলে বার বার রান্না করবেন।

রাত এখন গভীর! চলুন কথা না বলে দেখে ফেলি!

উপকরনঃ
– চিকেনঃ ১ কেজির মত
– পেঁয়াজ কিউবঃ ২ কাপ (ফালি ফালি করে কাটা)
– আদা বাটাঃ ১ টেবিল চামচ
– রসুন বাটাঃ ১ টেবিল চামচ
– হলুদ গুড়াঃ হাফ চা চামচ বা তারও কম
– মরিচ গুড়াঃ ১ চা চামচ (বুঝে শুনে, ঝাল বেশী হলে আবার শিশুরা খেতে পারবে না! ঝাল পরিমিত হওয়া জরুরী)
– এলাচিঃ ৪/৫ টি
– দারুচিনিঃ ১ ইঞ্চির ৩/৪ টুকরা
– কাঁচা মরিচঃ ৪/৫ টা (আস্ত, শেষে দেবার জন্য)
– লবনঃ পরিমান মত (দুই ধাপে)
– তেলঃ সয়াবিন তেল হাফ কাপের চেয়ে কম (দুই ধাপে এই তেল ব্যবহার করতে হবে)
– ৪ টেবিল চামচ টমেটো সস।

প্রনালীঃ (এটা মুলত দুই ধাপের রান্না। প্রথম ধাপে চিকেনকে ভেঁজে নিতে হবে এবং দ্বিতীয় ধাপে রান্না)

চিকেন কেটে ভাল করে ধুয়ে নিন।


সামান্য হলুদ গুড়া এবং লবন দিয়ে মেখে কিছুক্ষনের জন্য রেখে দিন।


খোলা তাওয়ায় কিছু তেল গরম করে চিকেন দিয়ে দিন।


চিকেন ভাঁজতে থাকুন। কিছু সময়ের জন্য ঢাকনা দিতে ভুলবেন না, এতে চিকেন নরম হয়ে যাবে এবং চিকেন থেকে পানি বের হয়ে যাবে।


এমন অবস্থায় আসলে চুলা বন্ধ করে চিকেন রেখে দিন। এবং এবার মুল রান্নায় আসুন।


এবার খোলা কড়াইতে তেল গরম করে পেঁয়াজের কিউব গুলো সামান্য লবন দিয়ে ভাঁজুন। সাথে কয়েকটা কাঁচা মরিচ, দারুচিনি এবং এলাচ দিয়ে দিন।


আদা বাটা, রসুন বাটা দিয়ে দিন।


এবার মরিচ গুড়া এবং হলুদ গুড়া দিয়ে দিন। এবং হাফ কাপ পানি দিয়ে ভাল করে কষিয়ে নিন।


কিছুক্ষনের মধ্যেই তেল উঠে এমন অবস্থায় এসে যাবে। হয়ে গেল ঝোল।


এবার ঝোলে ভেঁজে রাখা চিকেন দিয়ে দিন।


ভাল করে মিশিয়ে নিন এবং আরো এক কাপ পানি দিন। ঢাকনা দিয়ে মিনিট ১৫ মাধ্যম আঁচে রেখে দিন। মাঝে মাঝে নাড়িয়ে দিতে ভুলবেন না।


শেষে এই রকম দেখাবে।


এবার টমেটো সস দিয়ে দিন এবং মিশিয়ে নিন।


ঢাকনা দিয়ে আরো কিছু সময়ের জন্য রাখুন। আগুন মাধ্যম আঁচে থাকবে। কয়েকটা আস্ত কাঁচা মরিচ দিতে পারেন।


ঝোল কমে এমন অবস্থায় এসে যাবে। এবার ফাইন্যাল লবন দেখুন, লাগলে দিন না লাগলে ওকে বলুন।  আগুন বন্ধ করে কিছু সময়ের জন্য ঢেকে রাখুন।


ব্যস পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত, চিকেন/মোরগ দোপেয়াজা। দেখে কার না খেতে ইচ্ছা হবে!


মুলত এটা রুটি বা সেঁকা পরোটা দিয়ে খেতে হবে তা হলে এই রান্নার স্বাদ মুখে লাগবে।

সবাইকে শুভেচ্ছা। চিকেন রান্নাতো সব সময়ে করেই যাচ্ছেন, এবার একটু এভাবে রান্না করে দেখুন। পরিবারের সবাই নিশ্চিত আপনার এই রান্নার তারিফ করবেন। পছন্দ না করলে আমি আপনার চিকেন, মশলা এবং ভেজষের মুল্য ফেরত দিব! হা হা হা…।  ভাল থাকুন।

Advertisements

11 responses to “রেসিপিঃ মোরগ দোপেয়াজা (চরম স্বাদ)

  1. Looking yammy…… amar ma o tomato souse diye ranna koren majhe majhe.. setao anek moja hoi… apnar recipe ami obossoi try korbo… thanks a lot 🙂

    Like

  2. really looking yummy.eta ami kori.kintu panir shathe yougourt diye.tomatto sauce na diye.

    Like

  3. আমি চিকেন ভেজে এমন করে রান্না করি। আর সেটাকে দোপায়াজিই বলি। কিন্তু টমেটো সস দেইনা। তাজা টমেটো থাকলে দেই। ফার্মের মুরগী ভেজে রান্না করলেই ভালো।

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন।
      ফার্মের মুরগী ছাড়া আমাদের মত পরিবার গুলো কি খাবে? দেশী মুরগীর দাম অনেক এবং মাংস থাকে না। ফলে শিশুদের মন ভরানো যায় না। তা ছাড়া কে এফ সি/ বি এফ সি খেয়ে এখন দেশী মুরগী দেখলে চিল্লায়া উঠে!

      শুভেচ্ছা।

      Like

  4. পিংব্যাকঃ ঈদে মোরগ দোপেয়াজা | RupCare:: Bangladesh's First Style, Fashion, Beauty care, Skin care, Hair care, Celebs, Women, Health, Home Decor, Recipes Site

  5. vai, ei rannata asholei onek taste.. tobe asto darchinir bodole ghore toiri darchini powder use korle colour r flavour duitai oshadharon hoy… try kore dekhben

    Like

  6. আজ শুক্রবার। ছুটির দিন। এই রেসিপি দেখে হু-বুহু রান্না করে ফেললাম। পরিবারের অন্যান্য সদস্য কে কি বলল দেখার সময় নেই … আমার কাছে চরম লেগেছে !! ধন্যবাদ সাহাদাত উদরাজী ভাই।

    Like

  7. পিংব্যাকঃ এক নজরে সব পোষ্ট (https://udrajirannaghor.wordpress.com) | BD GOOD FOOD

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s