Gallery

রেসিপিঃ কচুর শাক রান্না (বরিশালের প্লেন ডাল দিয়ে)


কয়েকদিন আগে গ্রামের বাড়ী গেলাম। ব্যাটারীকে ফোন দিলাম, কি আনবো। তিনি জানালেন, অবশ্য অবশ্যই কচুর শাক নিয়ে আসবে। আমাদের বাড়ীর পুকুর পাড়েই অনেক অনেক কচুর শাক আছে। এখন বর্ষা কাল, চারিদিকেই ঝোপ ঝাড়! ভাবছিলাম নিজেই উঠিয়ে নিয়ে আসবো, সাথে বন্ধু থাকাতে সে চেষ্টা করি নাই! এদিকে আবার সাপের ভয় আছে! হা হা হা… কিন্তু সকালে ফিরার সময়ে দেখি, আমার এক চাচিমা কাকে দিয়ে অনেক কচু শাক তুলে বস্তা ভরে রেখেছেন। যাই হোক, সেই কচুর শাক নিয়ে আপনাদের ঢাকা শহরে ফিরলাম!

বাসায় ফিরে ব্যাটারীকে জানালাম, অনেক কচুর শাক এনেছি। তিনি মহা খুশি, আমিও খুশি। তবে কথার ফাঁকে জানালেন, ইলিশ মাছের মাথা থাকলে ভাল হত। ঘরে ইলিশ মাছ নেই! তবে ফর্মুলার অন্য আর একটা কথা জানালেন, ঘরে বরিশালের প্লেন ডাল আছে। চাইলে এই প্লেন ডাল দিয়ে কচুর শাক রান্না করতে পার। আমি প্লেন ডালের নাম শুনে অবাক। ব্যাটারী জানালেন, এটা আমাদের পাশের বাসার বরিশালের রোজী ভাবি দিয়েছেন। আমি আরো অবাক হয়ে ডাল গুলো দেখতে চাইলাম এবং বললাম এর নাম প্লেন ডাল হয় কি করে। দুনিয়াতে এত ডালের নাম শুনেছি, প্লেন ডালের নাম তো শুনি নাই!

আমি আমার ব্যাটারীকে বললাম, এটা বরবরটির বিচির মত (সাইজে আরো ছোট) এবং মনে হচ্ছে তুমি নাম শুনতে ভুল করেছ। তিনি তখন জানালেন, তিনিও রোজী ভাবীর কাছে এই নাম শুনে বার বার উনাকে জিজ্ঞেস করেছেন। এর নামই নাকি প্লেন ডাল। অনেক আগে/কোন এক সময়ে এই ডাল নাকি বরিশালে কোন এক বন্যায় প্লেন থেকে ফেলা হয়েছিল এবং সেই থেকে এই ডালকে বরিশাল অঞ্চলে ‘প্লেন ডাল’ বলা হয়ে থাকে! অদ্ভুত, অদ্ভুত, অদ্ভুত! হতেও পারে। দুনিয়ার সন নামেরই এমনি এক শানে নযুল আছে!

যাই হোক, এই প্লেন ডাল দিয়ে পরের দিন আমরা প্রথমবার কচুর শাক রান্না করি। কচুর শাক হালকা সিদ্ব করে ড্রীপ ফ্রীজে রেখে দেয়া হয়েছিল। আর ২য় বার এই কচুর শাকের ২য় অংশ রান্না করা হয়েছিল ইলিশ মাছের মাথা দিয়ে (ইলিশ মাছ কিনতে বাধ্য হয়েছিলাম এবং এই রেসিপিটা কয়েকদিন পর বিশদভাবে পোষ্ট করবো)। চলুন আজ, কচুর শাক এবং বরিশালের প্লেন ডাল যোগের এই রান্না দেখি। ঠিক আমার দেখা ছোট বেলায় যেমনটা আমার মাকে রান্না করতে দেখেছি। তবে তিনি প্লেন ডাল নয়, কচুর শাক রান্না করতেন সিমের বিচি দিয়ে। এই সিমের বিচির বদলে প্লেন ডাল ব্যবহারে রান্না মন্দ হয় নাই। আলাদা একটা আমেজ এসেছে, বেশ ভাল লেগেছে! অবশ্য আমার আবার খাবার দাবার! আমি কচুর শাক শুধু সিদ্ব করে দিলেও খেতে পারি! আমি কচুর শাক বেশ পছন্দ করি!   

উপকরন ও প্রনালীঃ

কাড়াইতে তেল গরম করে সামান্য লবন যোগে পেঁয়াজ কুচি, দুই টেবিল চামচ রসুন বাটা, কয়েকটা কাঁচা মরিচ দিয়ে ভাল করে ভেঁজে নিয়ে তাতে কিছু চিংড়ি মাছ দেয়া হয় এবং আবারো ভেঁজে নিলাম।


ভাঁজা শেষে হাফ চামচ হলুদ গুড়া এবং হাফ চামচ মরিচ গুড়া এবং এক কাপ পানি দিয়ে কষিয়ে ঝোল বানিয়ে নিলাম।


এবার আশা যাক প্লেন ডালের কথায়। রান্না শুরুর আগে প্লেন ডাল সামান্য ভেঁজে ভেঙ্গে নিলাম এবং পানিতে কিছুক্ষনের জন্য রেখে ভাল করে ধুয়ে নিলাম। এবার ঝোলে সেই প্লেন ডাল দিয়ে দিলাম।


ডাল নরম হয়ে যাবার জন্য প্রয়োজনে আরো এক কাপ পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে আরো মিনিট বিশেক কষালাম। (এই পর্যন্ত হলেও প্লেন ডাল দিয়ে ভাত খেয়ে উঠা যাবে)


এবার সিদ্ব করে রাখা কচুর শাক দিয়ে দিলাম।


ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে।


ঢাকনা দিয়ে আরো অনেক সময় রেখে দিতে হবে। কচুর শাক গলে মিশে যাবে।


আগুনের আঁচ মাঝারি হতে হবে। খুন্তি দিয়ে বার বার নাড়াতে হবে। কড়াইয়ের তলায় যেন না লেগে যায়!


পানি শুকিয়ে এমন একটা অবস্থায় আস্তে বেশী দেরী লাগবে না। তবে হাতের জোর থাকা চাই। বার বার নাড়াতে হবে। ফাইন্যাল লবন/ঝাল দেখে নিতে হবে। কয়েকটা কাঁচা মরিচ দেয়া যেতে পারে।


ব্যস পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত। গরম ভাতের সাথে একবার খেয়ে দেখতে পারেন। বরিশালের প্লেন ডাল এই কচুর শাক রান্না অরো জমিয়ে তুলেছে! মার্ভেলাস!

(কচুর শাকের সাথে এমনি ইলিশের মাথা দিয়ে রান্নাও করেছি, আশা করি আগামিতে তা দেখিয়ে দেব।)

সবাইকে শুভেচ্ছা। কচুর শাকের রান্না খান নাই, এমন কেহ কি এই পোষ্ট পড়ছেন! অনুগ্রহ করে হাত তুলুন!

কৃতগতাঃ মানসুরা হোসেন

26 responses to “রেসিপিঃ কচুর শাক রান্না (বরিশালের প্লেন ডাল দিয়ে)

  1. Bichitake basai bolte deksi felan bichi r evabei Vabi ranna korto onek sriti mone pore gelo.thanks

    Liked by 1 person

  2. Please post a photo of how does ‘kochu shak’ look like. I know how ‘kochur loti’ look like. I don’t think that is what you cooked here. Also, if you have some more ‘plane daal’ left, please show us how that looks like before cooking. Thank you.

    Liked by 1 person

  3. পুরনো দিনের কথা মনে পড়ে গেল । আমরাও গ্রামের বাড়ী গেলে কচু নিয়ে আসতাম ।নিয়ে আসতাম মানে আমার দাদী যখন জীবিত ছিলেন তখন উনি আমাদের কে সাথে করে দিতেন । তবে আমরা কচুর ডাটা সহ শাক ২ টাই একসাথে সিদ্ধ করে রান্না করি । ডাটা কি আপনি ফেলে দেন ?

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন। হা, আমরা যারা গ্রাম ছেড়ে শহরে বসবাস করছি আমাদের এখনো সেই স্মৃতি আছে। তবে আমাদের নেক্সট জেনারেশন এটা হারিয়ে ফেলছে। আমি এখন গ্রামের সাথে যোগাযোগ বাড়াতে চাই, তাই সময় পেলে গ্রামে ছুটে যাই। কিছু ডাটা রাখি। হ্যাঁ, এক সাথেই সিদ্ব করে নেই।

      গ্রাম শহর দুটোর অভিজ্ঞতাই ভাল। শুভেচ্ছা।

      Like

  4. এসব কচুর ডাটা পাতা কিছুই ফেলার নয়। আমিও খুব পছন্দ করি কচুশাক। আর আমার আশেপাশে এই শাক প্রচুর পরিমানে পাই। প্লেন ডালটা চিনতে পারলাম না। ডালের খোসা কি কালো বা বেগুনী রঙের ছিলো?

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ রান্নাতো বোন।
      কচুর শাক আমার ভীষন প্রিয়। আজকাল ঢাকার বাজারে রেগুলার পাওয়া যাচ্ছে। কিনতে ইচ্ছা হয় না, এই ভেবে যে, কোথা থেকে নিয়ে আসলো। কচুতো আবার খারাপ পানি/জায়গায় বেশি হয়! হা হা হা…

      প্লেন ডালটা আমিও নুতন দেখেছি। খোসা কালো ছিল।

      আপনার কমেন্ট পেয়ে অনেক অনেক খুশি লাগছে।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  5. apnar calender june e set kora. 🙂

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ, আসলে এটা ওয়ার্ডপ্রেস এর ভুল। ওরা যেখানে ট্রাস্লেট করছিল সেখানেই এই ভুল। গত বছরেও এই ভুল আছে। এটা কাদের কাছে বলবো বুঝতে পারছি না।

      ওয়ার্ডপ্রেস এর বাংলা বিভাগের কর্মীদের ভুল এটা। ওরা জুলাই এর জায়গাতেও জুন লিখে দিয়েছে।

      শুভেচ্ছা আপনাকে।

      Like

  6. কচুর শাক আমার খুব প্রিয়।আপ্নার রেসিপিটা ভাল লাগল।

    Liked by 1 person

  7. কয়েকদিন ধরে আপনার রেসিপির সাইটটাতে ব্রাউজ করছি। কত গুনি মানুষ আপনি। আল্লাহ্‌ আপনার ও আপনার পরিবারের মঙ্গল করবেন

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ শিকদার ভাই।
      আপনার কমেন্ট দেখে খুব খুশি হলাম। আমাদের চেষ্টা হচ্ছে পুরুষদের রান্নায় আগ্রহী করে তোলা, বিশেষ করে যারা প্রবাসে থাকেন কিংবা ব্যচেলর তাদের রান্না শিখিয়ে দেয়া। রান্নার মৌলিক বিষয় গুলো তাদের কাছে সহজ করে উপস্থাপন করা।

      অন্যদিনে নেটে বাংলা রেসিপির বিরাট অভাব আছে। আমরা চাই বাংলাতে আমাদের দেশের সব পরিচিত খাবার গুলো উঠে আসুক এবং সবাই বাংলাতেই আমাদের রেসিপি দেখুক।

      আমাদের ইচ্ছা আছে ১০০০ রেসিপি তুলে দেবার। তবে আমাদের এই রেসিপির ছবির ধারাবাহিকতা অনেকের কাছে সহজবোধ্য এবং সারা দুনিয়াতে আমরাই মনে হয় এইভাবে প্রথম রেসিপি দেই।

      রান্নাঘরে মোবাইল বা প্যাড/নোট বুকেই নিয়েই এখন অনেকে রান্না করছেন এবং আমাদের রেসিপি দেখছেন, এটা আমাদের জন্য আনন্দের।

      শুভেচ্ছা আপনার জন্য। ভাল থাকুন।

      Like

  8. কচুর শাকের আর একটা রান্না নিম্মের লিঙ্কে দেখার আমন্ত্রন জানিয়ে গেলাম।
    http://wp.me/p1KRVz-NU

    Liked by 1 person

  9. এই ডাল কি কিনতে পাওয়া যায়?

    Like

    • ধন্যবাদ বোন,
      এই ডাল সাধারণত দোকানে আমি নিজেও কখনো দেখি নাই। বড় আড়ত মার্কা দোকানে হয়ত পাওয়া যেতে পারে।

      বরিশালে পাওয়া যায়। আপনি এই ডাল না পেলে মুশরী ডাল দিয়ে রান্না করে দেখতে পারেন। আশা করি স্বাদ পাবেন।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  10. পিংব্যাকঃ এক নজরে সব পোষ্ট (https://udrajirannaghor.wordpress.com) | BD GOOD FOOD

  11. পিংব্যাকঃ রেসিপিঃ কচুর শাক ভাঁজি (খেলে ভুলতে পারবেন না!) | রান্নাঘর (গল্প ও রান্না)

  12. কোন ডাল দিয়ে কচুর শাক সবচেয়ে ভালো হয়? আমার মাকে দেখতাম ছোলার ডাল দিয়ে করতে। আমার ফ্রেন্ডকে দেখি মুসুর ডাল দেয়।

    Liked by 1 person

  13. Apnak onek onek donnobad receipe ta amader sathe share korar jonno.

    Liked by 1 person

  14. প্লেন ডাল মানে কি কালাইয়ের ডাল????

    Like

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s