গ্যালারি

৩৫০ এর বেশী রেসিপি ও ১,৫০,০০০ এর বেশী হিট এবং কিছু কথা!


বিষয়টা সহজ ছিল না। নেটে যখন নানান ব্লগ লিখে আসছিলাম, কি করে একদিন একটা ছবি সহ রেসিপি ব্লগ লিখে ফেলি, রান্নাটা আমি নিজেই করেছিলাম। চতুরের সেই রেসিপি ব্লগটা বেশ হিট হয় এবং আমি এই বিষয়ে উৎসাহ বোধ করি। তখন আমিও ভাল রান্না করতে পারতাম না, রান্নাঘরে মাঝে মাঝে যেতাম শুধু ব্যাটারীর সাথে আড্ডা বা কথা বলতে। বিবাহের প্রথম ১৩ বছরে (এখন ১৫ বছর চলছে) আমি হাতে গোনা সময়ে রান্নাঘরে গিয়েছি।  গত দুই বছরে বলতে গেলে প্রায় প্রতিদিনই রান্নাঘরে যাচ্ছি। এখন অনেক কিছু নিজে রান্না করি, ব্যাটারী আমাকে বলেন, প্লিজ তুমি রান্না কর। কারন জিজ্ঞেস করলে চুপ থাকেন! আসলে আমি রান্না করলে একটু স্বাদ বেশী হয় আর কি? হা হা হা।। আমার বুলেট যখন আমার হাতের রান্না খেয়ে বলে ভাল, তখন আনন্দের সীমা থাকে না!

ছেলেরা রান্না করবে, রেসিপি পোষ্ট দিবে তা হলে গল্প, কবিতা, সাহিত্যচর্চা কে করবে? আমি এই নীতিতে আর বিশ্বাস করি না। আমি মনে করি গল্প, কবিতা, সাহিত্যচর্চার পাশাপাশি পেটচর্চা করলে মন্দ কি? লেখালেখিতে আমাদের পরিচয়, সে যাই হোক লিখেই আমাদের নিজদের প্রমান করতে হবে, সেটা রেসিপি হউক আর গল্প, কবিতা, সাহিত্য, ভ্রমণকাহিনী হউক! তবে আমার রেসিপি লিখার প্রথম উদ্দেশ্য হচ্ছে – প্রবাসী, রান্না না জানা, ব্যচেলরদের সাহায্য করা এবং সেই চেষ্টা আমি সফল বলে মনে করি। আমি দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিলাম, আমি জানি, রান্না না জানলে কত কষ্ট করতে হয়। বাংলাদেশী বাংগালীদের পেটে ভাত না ঢুকলে কেমন লাগে তা আমার চেয়ে আর কে বেশি জানে? হা হা হা…

সে যাই হোক, আপনাদের ভালবাসায় আমরা ধন্য, আমরা আনন্দিত, আমরা প্রায়ই আপনাদের কথা বলি। বাসে, রিক্সায়, ট্রেনে কিংবা বাসায় আপনারা অনেকে যখন ফোন করেন কিংবা বিদেশ থেকে ফোন, মেইল করে আপনারা কিছু জানতে চান তখন আনন্দের সীমা থাকে না। আপনাদের ভালবাসার কারনে কম সময়ে ৩৫০ এর বেশী রেসিপি (প্রতিটা পোষ্টে কমের পক্ষে ১০টা করে ছবি থাকে) পোষ্ট হয়ে গেছে (আমাদের ইচ্ছা ১০০০ রেসিপি পোষ্ট করা) এবং আপনারা ১,৫০,০০০ এর বেশী হিট (৮৪টি দেশ থেকে) করে ফেলেছেন। একটা পারসোন্যাল ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে এখন প্রায়  সারা বিশ্ব থেকে প্রতিদিন ১০০০ এর বেশী হিট হয় যা সহজ ব্যাপার নয়। আপনাদের সবাইকে জানাই প্রীতি ও শুভেচ্ছা এবং আন্তরিক অভিনন্দন।

আপনারা যারা নুতন রান্না করেন কিংবা রেসিপি দেখে রান্না করেন তাদের জন্য আমরা বিশেষ সহায়ক। আমার জানা মতে সারা বিশ্বে এই ভাবে ছবির পর ছবি সাজিয়ে গল্প বলে রেসিপি পোষ্টে আমরাই প্রথম এবং আমাদের রেসিপি পোষ্ট এতই ডিটেইলস যে, যে কেহই রেসিপি দেখে রান্না করতে পারবে এবং করছেন। অনেক প্রমান এখন দাঁড়িয়ে গেছে। হা হা হা।।

যাই হোক, আমার খুব ইচ্ছা যদি সারা দুনিয়ার এই বাংলাভাষাভাষী রেসিপি পাঠক/পাঠিকাদের দাওয়াত করে একবেলা খাওয়াতে পারতাম! আড্ডা দিতে পারতাম! আহ, সেই দিন কি আসবে? তবে আশা পোষন করছি, আমার ছেলে বুলেটের বিয়েতে (সে যদি আবার পালিয়ে বিয়ে না করে বসে) ওপেন নেটে দাওয়াত থাকবে। যার যার ইচ্ছা, আসবেন এবং আমাদের হাতের খাবার খাবেন। প্রয়োজনে কয়েকদিন ধরে খাবার দাবার চলতে থাকবে! হা হা হা।


দুই ডিব্বা আঁচারের এক ডিব্বা যাবে বেইলী রোড এবং অন্য ডিব্বা যাবে থাইল্যান্ডের ব্যাংকক (বন্ধুর বাড়ী)! কথাটা পড়ে হয়ত অনেকে হাসছেন! আসলে দিন কয়েকের জন্য আমি একটু থাইল্যান্ড যাচ্ছি (কথাটা ঢং করে আপনাদের জানানো), ব্লগে আসতে পারবো না হয়ত (চেষ্টা থাকবে, সুযোগ পেলে আসবো)! তাই আপনাদের কমেন্ট, ফোন কিংবা জিজ্ঞাসার উত্তর দিতে পারবো না কয়েকদিন। ফেইসবুকে ফ্রী ওয়াইফাই জোন পেলেই একটিভ থাকব।  সবাই আপনারা ভাল থাকুন।

তবে ৩৫০ এর বেশি রেসিপির মধ্যে আমি নিশ্চিত, আপনি আপনার পছন্দের রান্না খুঁজে পাবেনই! যেটা চান সেটা না পেলে, সেই রকম (হয়ত উপকরন ভিন্ন) পাবেনই।

সবাইকে অভিনন্দন, সালাম, আদাব ও শুভেচ্ছা। প্রিয় দেশ ভাল থাকুক।

Advertisements

20 responses to “৩৫০ এর বেশী রেসিপি ও ১,৫০,০০০ এর বেশী হিট এবং কিছু কথা!

  1. Shadat bhai…Doa kori apner asha purno houk. Asole apni jevabe rannar picture den, tate easily ranna kora jay. Mane cobi dekhe ranna….Ha.ha..
    Apner sathe adda dite kub mon cay..Valo thakun. Thailand theke kobe back korben??

    Like

    • ধন্যবাদ রেদোয়ান ভাই। আপনাকে প্রানঢালা অভিনন্দন।
      আমি আড্ডাবাজ, থাইল্যান্ডে আড্ডা দিতেই……।

      হা, গত ২৭ তারিখ রাতে ফিরে এসেছি। আছি ভাল। আমাদের চেষ্টা হচ্ছে সহজ করে রেসিপি দেয়া যাতে নুতন রা রেসিপি দেখেই রান্না করতে পারেন।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  2. apni eto valo keno?mayeder eto somman apni koren je alada kore tai kothata boltei holo.sobsomoiei dekhi apni apnar wife k khub sundor kore mullaion koren.asole,amader somaje onek purusmanuser dorkar apnake onusoron kora.apnar bidesh jatra suvo hok.

    Like

    • ধন্যবাদ বোন। আপনার প্রশংসার যোগ্য আমি নই। আপনিও অনেক ভাল, তাই আমাকে ভাল চোখে দেখলেন।

      আপনাকেও অনেক অনেক শুভেচ্ছা। ভাল থাকুন। আশা করি আমাদের সাথে থাকবেন। মাঝে মাঝে কমেন্ট করবেন। আপনার নামটা জানালে খুশি হব। নুতন কোন রেসিপি জানতে বা আপনার প্রিয় খাবারের নাম জানাতে পারেন। আমরাও খেয়ে দেখি। হা হা হা।।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  3. pore onek bhalo laglo……ar advanced daoat…oh kebolbo!!!!!!!! asaha kore are agea jan …my best wishes for u from bottom of heart

    Like

  4. ধন্যবাদ ভাইয়া। আপনার ভ্রমন সুন্দর হউক। থাইফুড নিয়ে লিখা এখনই আশা করে আছি। ক্যামেরা নিয়েছেন তো? ভালয় ভালয় ফিরে আসুন।

    Like

  5. Oh another thing is that I want your visit report of Bangkok! Ha ha.

    Like

  6. আপনার যাত্রা সফল ও নিরাপদ হউক আই দুয়া করি ।

    Like

  7. আপনাদের দু’জনকেই অভিনন্দন! আরও অনেক দূর এগিয়ে যান সেই দোয়া করি।
    আর আপনার যাত্রা শুভ হোক সেটা কামনা করি। নিরাপদে ফিরে আসুন সেটাই আমরা চাই।

    Like

  8. অভিনন্দন আপনাকে উদরাজী ভাই। আপনার রেসিপিগুলো অনেক বিস্তারিত ভাবে লেখা, দেখে ভাল লাগে। আমার ছেলেই প্রথম আপনার রেসিপি গুলো নিয়ে করা ব্লগটি দেখিয়েছিল। আপনার পরিবারের সবাইকে শুভেচ্ছা জানাবেন।

    আপনার পথচলায় শুভকামনা রইল।

    Like

    • ধন্যবাদ ভুলু আপা। আমি আপনাকে সন্মান করি। আপনি আমার ব্লগে এসে কমেন্ট করেছেন তা দেখে খুশিতে মন ভরে যাচ্ছে আমাদের। নেটে আপনার আলু ভাঁজা দেখে আমি সেই রকম করেই আলু ভেঁজে ছিলাম এবং সেই পোষ্ট অঙ্কে জনপ্রিয় হয়েছিল।

      আমি যেভাবে রান্নার পোষ্ট দিচ্ছি, এমন করে দুনিয়ার কেহ রেসিপি পোষ্ট দেন কিনা আমার জানা নেই। আমি চাই নুতনরা যেন ছবি দেখেই রান্না করতে পারে এবং রান্নাকে কঠিন বিষয় না ভাবেন। আমি বিশেষ করে প্রবাসী এবং ব্যচেলরদের জন্য আমার পোষ্ট গুলোতে বিশেষ নজর রাখি। তাদের জন্য আমি আরো বিস্তারিত রেসিপি দিতে চাই।

      আপনার আরো আরো দোয়া কামনা করছি। আপনিও ভাল থাকুন এবং আমাদের জন্য আরো আরো রান্না দিন।

      আলু ভাজি (ভুলু আপার রেসিপি থেকে)
      http://wp.me/p1KRVz-5
      মুল রেসিপি ও গল্প চতুরমাত্রিকে প্রকাশ হয়েছিল।

      Like

  9. সাদাত ভাই, অবশেষে চলে আসলাম আপনার ব্লগ বাড়িতে। আপনার ব্লগটি আমি আমার ব্রাউজারে বুকমারক করে রেখেছিলাম। আসবো আসবো করে আসা হচ্ছিল না। তাই ক্ষমা চাচ্ছি। আশা করি আপনার আশা পূরণ হবে। চালিয়ে যান।

    Like

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s