Gallery

বৈশাখের দুপুরের খাবার ও আমাদের সাধারন আনন্দ ১৪২০!


প্রতি বছরের মত এবারেও আমাদের বাসায় পহেলা বৈশাখের দুপুরের খাবার হয়ে গেল একটু আগে। এবারেও আমাদের বাড়ীর সবাই একাত্রিত হয়ে মাটিতে মাদুর পেতে এই দুপুরের খাবার খেয়ে নিলেন। চার পরিবারের বসবাস আমাদের এই রামপুরার বাড়ীতে, বাংলাদেশের নানান জেলায় থেকে আগত। আমাদের বাড়ীওয়ালা ভাবীর একান্ত এবং আন্তরিক ইচ্ছায় সবাই মিলে এই আয়োজন করে থাকেন। আসলে তেমন কিছু না, তবে এই আনন্দটাই বিরাট ব্যাপার। আমি যখন এই লেখাটা লিখছি তখনো আমাদের বাড়ীয় মেয়েরা আড্ডা দিয়েই চলছে!

সে যাই হোক, এখন বেশি সময় নেব না। সময় চলে যাচ্ছে। আগে খাবার গুলো দেখে নিন। এক এক পরিবার থেকে এক এক আইটেম এসেছে। শুধু একটা আইটেম সবাই চাঁদা দিয়ে বাজার থেকে কিনে এনে সম্মিলিতভাবে রান্না হয়েছে।


ছবি ১ – চিংড়ি মরিচ ভর্তা ও ধনে পাতার ভর্তা। এই ভর্তা দুটো করেছেন রোজী ভাবী।


ছবি ২ – ময়মনসিংহ এর জাম আলু ভর্তা করেছেন নীপা ভাবী।


ছবি ৩ – গোল বেগুন ভুনা (ডিম যোগে) করেছেন আমাদের বড় ভাবী ওরফে বাড়ীওয়ালা ভাবী।


ছবি ৪ – তেঁতুল ও টমেটো চাটনী। এই বিশেষ চাটনীও বানিয়েছেন বড় ভাবী।


ছবি ৫ – লইট্যা শুঁটকী ভুনা বানিয়েছেন আমাদের ব্যাটারী ভাবী (আমার না আপনাদের!)


ছবি ৬ – সাধারন মুরগী মাংস রান্না (সম্মিলিত প্রচেষ্টা)


ছবি ৭ – সাদা ভাত। (রোজী ভাবী ও বড় ভাবী)
(টেবিলে সাজিয়ে রাখা আইটেম গুলো দেখে প্রথমে মনে হয়েছিল কম, খেতে বসে সব কিছু শেষ করা বেশ দুরহ হয়েছিল)


ছবি ৮ – আরো ছিল কাঁচা আমের শরবত। এই লিখাটা লেখার সময় আমি হালকা চুমুক দিয়ে নিচ্ছিলাম! আহ…। কাঁচা আমের

ঢাকা শহরের মধ্যবিত্ত পরিবারের আনন্দ এমনি সামান্যই। বৈশাখ এমনি এক উৎসব হয়ে উঠছে, যা একসময় সর্বজনীন হয়ে ঊঠবেই! সারা বাংলাদেশের সব মানুষকে নিয়ে এমনি এক দিনের একটা উৎসব আমাদের বেশ দরকার, যাতে আমরা সবাই সবার মনের কাছাকাছি যেতে পারি!

Advertisements

16 responses to “বৈশাখের দুপুরের খাবার ও আমাদের সাধারন আনন্দ ১৪২০!

  1. Udraji bhai, plz plz post recipe of each item in the pics. The foods look delicious.

    Like

    • ধন্যবাদ বোন ফারজানা। আসলে এই খাবার গুলোর আমাদের রেসিপিতে আছে। তবে দুনিয়ার এক একটি রান্না, এক এক ইউনিক কাজ। আপনি যে যে আইটেম দিয়ে রান্না করবেন আমি সেই সেই আইটেম দিয়ে রান্না করলে আপনার স্বাদের তুলনার আমার রান্নার স্বাদ ভিন্ন বা কম হতে পারে, দেখতেও ভিন্ন হতে পারে। আরো খুলে বলি, একই রান্না, মা রান্না করলে একরকম, আপনি রান্না করলে আরেক রকম, আর অন্য বোন রান্না করলে আর এক রকম হবে! হা হা হা……। স্বামী রান্না করলে, আমি জানি না, কি করবেন? মাথা তুলবেন নাকি মুখের উপর বলে দেবেন, ভাল হয় নাই! স্বামীরা অবশ্য সব সময় আশা করে ভাল কমেন্টস! হা হা হ… তাকে এপ্রিসিয়েট না করলে সে পরের বার ভাল রান্না করবে না! আশা করি বুঝাতে পারলাম! সে যাই হোক, রেসিপি গুলো দেখে নিতে পারেন!

      রেসিপিঃ গরমে কাঁচা আমের শরবত
      http://wp.me/p1KRVz-cU

      রেসিপিঃ জাম আলু ভর্তা (শুধু ছবি, শুধু দেখা এবং আহ)
      http://wp.me/p1KRVz-CD

      রেসিপিঃ লইট্ট্যা শুঁটকী ও রসূন
      http://wp.me/p1KRVz-C4

      রেসিপিঃ মুরগী আলু ঝোল
      http://wp.me/p1KRVz-nR

      বেগুন ভুনা (ডিম আছে মামা)
      http://wp.me/p1KRVz-91

      ভর্তা: চিংড়ি
      http://wp.me/p1KRVz-1M

      এভাবে আরো অনেক রেসিপি আছে, শুধু খুঁজে নিতে হবে!
      http://wp.me/P1KRVz-hw
      এই লিঙ্কে সব বলে দেয়া আছে। যে রেসিপি গুলো নেই তাই আমরা এখন যোগ করছি। হা হা হা…।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  2. রেসিপি কই !

    Like

    • (কপি পোষ্ট মন্তব্য!)
      ধন্যবাদ বোন মারজানা। আসলে এই খাবার গুলোর আমাদের রেসিপিতে আছে। তবে দুনিয়ার এক একটি রান্না, এক এক ইউনিক কাজ। আপনি যে যে আইটেম দিয়ে রান্না করবেন আমি সেই সেই আইটেম দিয়ে রান্না করলে আপনার স্বাদের তুলনার আমার রান্নার স্বাদ ভিন্ন বা কম হতে পারে, দেখতেও ভিন্ন হতে পারে। আরো খুলে বলি, একই রান্না, মা রান্না করলে একরকম, আপনি রান্না করলে আরেক রকম, আর অন্য বোন রান্না করলে আর এক রকম হবে! হা হা হা……। স্বামী রান্না করলে, আমি জানি না, কি করবেন? মাথা তুলবেন নাকি মুখের উপর বলে দেবেন, ভাল হয় নাই! স্বামীরা অবশ্য সব সময় আশা করে ভাল কমেন্টস! হা হা হ… তাকে এপ্রিসিয়েট না করলে সে পরের বার ভাল রান্না করবে না! আশা করি বুঝাতে পারলাম! সে যাই হোক, রেসিপি গুলো দেখে নিতে পারেন!

      রেসিপিঃ গরমে কাঁচা আমের শরবত
      http://wp.me/p1KRVz-cU

      রেসিপিঃ জাম আলু ভর্তা (শুধু ছবি, শুধু দেখা এবং আহ)
      http://wp.me/p1KRVz-CD

      রেসিপিঃ লইট্ট্যা শুঁটকী ও রসূন
      http://wp.me/p1KRVz-C4

      রেসিপিঃ মুরগী আলু ঝোল
      http://wp.me/p1KRVz-nR

      বেগুন ভুনা (ডিম আছে মামা)
      http://wp.me/p1KRVz-91

      ভর্তা: চিংড়ি
      http://wp.me/p1KRVz-1M

      এভাবে আরো অনেক রেসিপি আছে, শুধু খুঁজে নিতে হবে!
      http://wp.me/P1KRVz-hw
      এই লিঙ্কে সব বলে দেয়া আছে। যে রেসিপি গুলো নেই তাই আমরা এখন যোগ করছি। হা হা হা…।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  3. আজ এতো খাবার। ভোজন রসিক না হয়ে আর থাকা যায় না।

    Like

    • ধন্যবাদ নিজাম ভাই, আপনাকে এই বৈশাখের প্রথমদিনে দেখে ভাল লাগছে। হা, এই সব খাবার আমাদের আসলে চীরদিন টেনেই যাবে! যে খাবার আমরা শিশু ও যুবককালে খেয়েছি তা কি করে ভুলি!

      আপনার ব্যানারটা প্রায়ই থাকছে! বেশি না চাইলে, সময় পেলে আবারো দুই/একটা ব্যানার চাই! হা হা হা…।

      ভাল থাকুন। বৈশাখী শুভেচ্ছা।

      Like

  4. Shubho nobo borsho. Agaami din gulo shobar jonno shunsor hok –
    Shadman

    Like

  5. উদরাজী ভাইয়া, আপনি কিন্তু আমাদের আসতে বললেন না! আমরা কিন্তু আপনার ফোনের অপেক্ষায় ছিলাম! যা হোক, শুভ নববর্ষ। (অটঃ একবার আড্ডা দেওয়া উচিত, তাই না?)

    Like

    • হা হা হা…। কি যে বলেন নিয়াজ ভাই। আপনার আইটেম দেখে আমার যেতে ইচ্ছা হল আপনার বাসায়! আর আপনি।

      হ্যাঁ, আমাদের অনেকদিন ধরে তেমন আড্ডা নেই, একটা আড্ডা হয়ে যেতে পারে। আমি একটু বেকায়দায় আছি, ঠিক হয়ে গেলে আশা করি, আমিই আড্ডার ডাক দিবো।

      তা সারা বিকেল কি করে কাটালেন? লিসা ভাবী কেমন আছেন?

      শুভেচ্ছা।

      Like

  6. চিংড়ি মরিচ ভর্তা ও ধনে পাতার ভর্তা দিয়ে এই মুহূর্তে ভাত খেতে ইচ্ছা করছে।

    Like

    • ধন্যবাদ বোন। চিংড়ি মরিচ ভর্তা বেশ হয়েছিল, আর ধনে পাতার ভর্তা, এমন ঝাল হয়েছিল যে, তবে আমাদের বাড়ির মেয়েরা বলছে এটা নাকি তেমন ঝাল নয়।

      খুব সহজ, আপনি আশা করি নিজে একদিন বানিয়ে খাবেন।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  7. আপনাদের আনন্দ চির জাগ্ররত থাকুক। তবে ইলিশ মাছ না দেখে একটু আশ্চর্য্য হলাম!

    Like

    • ধন্যবাদ খালেদ ভাই। আসলে ইলিশ খেতেই হবে এমন ধারনা এই বাড়ির কেহ পোষন করে বলে আমার মনে হয় না। এটা একটা সাধারন উতসবের মত করে সবাই একাত্রিত হয়ে আনন্দ করাই উদ্দেশ্য। এদিকে এই সময়ে ইলিশের দাম দেখেছেন? মধ্যবিত্ত পরিবার গুলো কি করে কিনবে।

      শুভেচ্ছা।

      Like

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s