Gallery

রেসিপিঃ টমেটো ভুনা (স্বাধীনতা)


আজ আমাদের স্বাধীনতা দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে আমাদের স্বাধীনতা ঘোষনা করা হয় এবং দীর্ঘ এক রক্তাক্ত যুদ্ধ ও সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আমরা স্বাধীনতা লাভ করি। ১৬ই ডিসেম্ভরের বিজয় ঘোষনার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নামের আমাদের এই প্রিয় দেশের জন্ম হয়। দুনিয়াতে আমরা স্বাধীন দেশ হিসাবে পরিচিতি পাই। স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসাবে আমাদের গর্বের সীমা নাই। আমরা পেয়েছি আমাদের নিজস্ব পতাকা। এই স্বাধীনতার জন্য যারা অকাতরে নিজদের প্রান বিলিয়ে দিয়েছেন, যারা সম্মুখ যুদ্ধ করেছেন, যারা নিজের সন্মান হারিয়েছেন (সেই সময়ের কিছু কুলঙ্গার/জারজ ছাড়া) তাদের সবাই আমাদের দেশের সন্মানিত সন্তান, তাদের প্রতি আমার সালাম থাকল। বিশেষ করে যারা শহীদ হয়েছেন, তাদের জন্য অপরিসীম শ্রদ্ধা ও ভালবাসা (খুব কষ্ট পাই, যখন দেখি কোন শহীদ পরিবার আজও আর্থিক কষ্টে আছেন)। তাদের জন্যই আজ আমরা এই বিশ্বে মাথা উচু করে বলতে পারি, লাল সবুজের পতাকা মেলে ধরতে পারি।

যাই, আসলে আমাদের দেশের বর্তমান পরিস্থিতি দেখলে বড় দুঃখ লাগে। যারা প্রান দিয়ে, এই দেশ ভালবেসে যা দেখতে চেয়েছিলেন, যে স্বাধীনতা অর্জন করেছেন, তা কি এখন আমরা দেখতে পাচ্ছি। স্বাধীনতার সুফল কি আমরা ভোগ করতে পারছি, আমাদের পরবর্তি জেনারেশন কি সেই স্বাধীনতা দেখে যেতে পারবে? না, সত্য এখনো এই যে, সেই আশার আলো স্বাধীনতার এত বছর পরেও আমাদের হাতে এসে ধরা দেয় নাই।

আমাকে যদি আপনারা জিজ্ঞেস করেন বা আমাদের মত মানুষের স্বাধীনতা কি? (আমাদের মত মানুষ বলে এখানে সাধারন জীবনযাপনে অভস্থ্যদের কথাই বলছি, যারা আমরা সামান্য অন্যায় করেও বেঁচে থাকতে চাই না) হা, আমরা শুধু দেশের সুন্দর একটা অবকাঠামো চাই, সম্ভবনা চাই, চাই বেঁচে থাকার সুন্দর একটা পথ, যে পথে আমরা হাটবো প্রান খুলে নিরাপত্তায় এবং বিশ্বস্থ্যতায়। খাবো সামান্য তবে সেটা হতে হবে ভেজাল মুক্ত, যাতনাবিহীন। রোগে শোকে নয়, স্বাভাবিক মৃত্যুই আমাদের কাম্য! এই তো! তেমন আর কি আমাদের চাওয়া?

আমার স্বাধীনতায়, আমার রান্নাঘর থাকবে দুষনমুক্ত, ভেজাল প্রবেশ করতেই পারবে না। আমি বাজার থেকে যা যতসামান্য কিনবো সেটা হবে স্বর্গীয়। এই তো? ভেবে আসলে কুল পাই না, আমাদের রাষ্ট্রপারিচালনায় যারা এযাবত এসেছেন তারা কি আমাদের এই সামান্য স্বাধীনতা/চাওয়াও কি নিশ্চিত করবেন না! আমরা কি শুধু যুদ্ধ করেই যাব! কত কথা মনে পড়ছে!

থাক, কাকে দায়ী করবো! (এই সব নিয়ে কথা বললে সাগরের পানি কালি হলেও কম পড়ে যাবে) তার ছেয়ে চলুন, একটা স্বাধীন রান্না দেখি। টমেটো ভুনা, পানির মত রান্না, কিন্তু গরম ভাতের সাথে খেয়ে বলতেই হবে, এটাই প্রকৃত স্বাধীনতা!

উপকরণঃ
– হাফ কেজি পাকা টমেটো
– কয়েকটা চিংড়ী মাছ
– পেঁয়াজ কুঁচিঃ হাফ কাপ
– রসুন বাটাঃ ১ চা চামচ
– আদা বাটাঃ ১ চা চামচ
– লাল মরিচ গুড়াঃ সামান্য
– হলুদ গুড়াঃ হাফ চা চামচ বা তার কম
– কয়েকটা কাঁচা মরিচ
– লবন পরিমান মত
– তেলঃ হাফ কাপের কম
– সামান্য ধনিয়া পাতার কুঁচি
– পানি (পরিমান মত)

প্রনালীঃ ( ছবি কথা বলে)

ছবি ১


ছবি ২


ছবি ৩


ছবি ৪


ছবি ৫


ছবি ৬


ছবি ৭


ছবি ৮


ছবি ৯


ছবি ১০


ছবি ১১

আপনারাই বলুন, এর চেয়ে আর কি স্বাধীনতা হতে পারে। বাংলাদেশের মানুষ এখনো অনেক ভদ্র এবং ধৈর্যশীল। আমাদের মানুষেরা এখনো সামান্যতেই অনেক খুশি থাকি। মানুষের সেই সামান্য খুশি কি আমরা এনে দিতে পারি না!

11 responses to “রেসিপিঃ টমেটো ভুনা (স্বাধীনতা)

  1. Apner shes parer kother shathy eakmot. Amra jara bidesh thaki tara buji, ei manushra eakhonow kishu bolche na.

    Amader eakjon Mahathir dorkar.

    Like

  2. সাহাদাত ভাই,
    প্রাণ দিয়ে লেখা ব্লগ । রেসিপি টিও চমৎকার। গীতশ্রী

    Like

    • ধন্যবাদ বোন, আপনি আমাকে উপলব্দি করেছেন দেখে ভাল লাগল। হা, রেসিপি লিখা (এমন করে রেসিপি লিখা বিশ্বে আমি প্রথম ব্লগার বলে মনে হয়) বেশ সময়ের ব্যাপার। কেন জানি রেসিপি ব্লগেই আমার মন প্রান পড়ে থাকে।

      শুভেচ্ছা। আশা করি মাঝে মাঝেই দেখে যাবেন।

      Like

  3. Chobi gulo prannobonto. Thanks for sharing.

    Like

  4. পিংব্যাকঃ এক নজরে সব পোষ্ট (https://udrajirannaghor.wordpress.com) | BD GOOD FOOD

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s