Gallery

রেসিপিঃ কলার মোচা ভুনা


ছোটবেলায় আমার আম্মা কলার মোচা/থোড় ভুনা করতেন এবং আমার এখনো মনে আছে, প্রথম প্লেট ভাত সেই ভুনা দিয়েই খেয়ে ফেলতাম। অনেক অনেক বছর এমন খাবার আর খাওয়া হয় নাই। গত কয়েকদিন আগে বাজারে এমন একটা কলার থোড় দেখে রান্নার জন্য নিয়ে নেই। বাজারে দাঁড়িয়ে কে রান্না করবে তা ভেবে দেখি নাই। বাসায় এসে আমার ব্যাটারী দেখে আমাকে বললেন, তিনিও তার মায়ের হাতে কয়েকবার খেয়েছেন কিন্তু রান্না কি করে করা হয় তা তিনিও জানেন না। শুরু হল আমাদের এদিন সেদিক ফোন। খুব সহজে একটা রান্নার কথা জানা হল এবং দেখলাম এটাই সহজে রান্না হতে পারে।

এদিকে আমাদের বাসার সহকারী সুফিয়া জানালো, এই থোড় আরো একভাবে মানে চিংড়ি মাছ দিয়ে রান্না করেও খেতে বেশ মজা। যদিও আমি এমন রান্নার কথা শুনি নাই। যাই হোক, যেহেতু কলার থোড় বড় ছিল তাই আমি বললাম। বাসায় সবই আছে সুতারাং দুইভাবেই রান্না চলতে পারে। যেই কাজ সেই কর্ম। চলুন আজ কলার থোড়ের ভুনাটাই দেখি, সুযোগ পেলে চিড়িং দিয়ে রান্নাটাও দেখিয়ে দেব।

তবে আমার কাছে রান্নাটা সহজ মনে হলেও খেতে বসে মনে হয়েছে, যে কেহ এই রান্না করলে চলবে না! এই রান্নার জন্য মায়েদের হাতের মত হাত হতে হবে। মায়েরাই এই রান্না করতে পারবেন। রান্নায় হাতের যস এবং আলাদা একটা আন্তরিকতা থাকতে হবে।

উপকরনঃ

– কলার থোড় বাটা
– পেঁয়াজ কুঁচি
– রসুন কুঁচি
– কয়েকটা শুকনা মরিচ
– এক চিমটি হলুদ গুড়া (সিদ্ব করার সময় ব্যবহার হবে)
– পরিমান মত তেল
– পরিমান মত লবন/ পানি

প্রনালীঃ

হলুদ গুড়া এবং লবন দিয়ে কলার মোচার ভিতরের ফুল গুলো (নাম জানা নেই) সিদ্ব করে নিতে হবে।


এর পর বেঁটে পেষ্ট বানিয়ে নিতে হবে।


কড়াইতে তেল গরম করে তাতে সামান্য লবন যোগে পেয়াজ কুঁচি, রসুন কুঁচি ও শুকনা মরিচ দিয়ে ভাল করে ভেজে নিতে হবে।


এবার থোড় বাটা দিয়ে দিন।


আবারো ভাল করে ভাজুন। এবং ফাইন্যাল লবন দেখুন লাগলে দিন, না লাগলে ওকে।


ব্যস প্রস্তুত হয়ে গেল কলার থোড় ভুনা।

(আমার কাছে তেমন একটা স্বাদ লাগে নাই। শিশুকালে মায়ের হাতের রান্নার স্বাদ হয়ত এখনো মুখে লেগে আছে বলেই। আপনারা যদি কেহ কলার থোড়ের আরো ভাল রান্না জানেন তবে আমাকে জানাতে পারেন। আমি আবারো রান্না করব।)

কৃতজ্ঞতাঃ মানসুরা হোসেন

29 responses to “রেসিপিঃ কলার মোচা ভুনা

  1. আমরা এটার কুচি ভাজি খাই।মজা হয়।কলার থোর না এটা মোচা । থোর অন্যটা ।

    Like

    • ধন্যবাদ বোন। একটু সময় থাকলে রেসিপিটা বলে দিন, আমি আবার চেষ্টা করব। হা হা হা, অনেক কিছু এখনো জানার বাকী আছে আমার। আমি ঠিক করে দিচ্ছি।
      আমার যতদুর মনে পড়ে ছোট বেলায় আমরা একটা থোড়ই বলতাম। তবে মোচা অবশ্যই বলা যায়।

      আপনাকে এই প্রথম দেখলাম। আশা করি আগামীতেও আমাদের সাথে থাকবেন।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  2. amader bashai onak bar eaata ranna hoto. amar ma o pochando korten. thanks for remembing me.

    Like

  3. এটা থোড় নয়, এটার নাম মোচা। এর একেকটা ফুল থেকে একেকটা কলা হয়।
    কলার থোড় হচ্ছে কলা গাছের বাকল একটা একটা করে ছিলে ফেললে যখন আর ছিলবার মত কিছু থাকে না, থাকে শুধু সাদা রঙের মোটা লাঠির মত একটা লম্বা দণ্ড, সেটাকেই বলা হয় থোড়। সেটাও খাওয়া যায় – প্রথমে পাতলা চাক চাক করে কেটে তারপরে ছেকচি করে। তবে খসখসে কষ সমৃদ্ধ বলে অনেকেই তেমন পছন্দ করে না।
    আপনার রান্না করা মোচার স্বাদ না হবার অন্যতম কারণ, প্রত্যেকটা ফুলের মাঝখানে যে শক্ত কাঠির মত বস্তু থাকে (যেটার শেষ প্রান্তে একটা ছোট্ট বলের মত থাকে) তা ফেলে না-দেওয়া। মোচা বাছতে হলে ধৈর্যের দরকার অনেক, শক্ত একটা কাজ।

    Like

    • ধন্যবাদ হুদা ভাই, এবার পুরা বিষয়টা বুঝতে পারছি।
      তবে মোচার ফুলের ভিতরের শক্ত দন্ড ফেলা হয়েছে এবং সেটা আমার উপস্থিতিতেই।

      আমার কাছে মোচাটা বেশ পুরানো মনে হয়েছিল আর সেই কারনে কিনা বুঝতে পারছি না। নাকি মশলা পাতি মনে হয় আরো কিছু দরকার ছিলো!

      যাই হোক, আবারো একদিন চেষ্টা করব। আশা করি স্বাদ না হয়ে যাবে কোথায়?

      Like

  4. সব কিছুই ঠিক আছে। রান্নার সময় হলুদ, গুড়া মরিচ, আদা, রসুন বাটা, জিরা, গরম মসলা দিয়ে কষিয়ে সেদ্ধ মোচা দিয়ে অল্প পানি দিয়ে আবার ভালো করে কষিয়ে যখন তেল উপরে উঠবে তখন নামিয়ে নিবেন।
    সামুতে আমার মোচা ভুনার পোস্ট আছে।

    Like

  5. যদি কখনো সুযোগ পাই তবে হুদা ভাই আপনাকে মোচা ভুনা খাওয়াবো।
    আমি নিশ্চিত বলতে পারি আপনি এটা খেলে অন্য তরকারীতে হাতও দেবেন না।

    তবে সাগর কলার মোচা তিতা হয়। আগে বাজারে সাগর কলার মোচা পাওয়া যেতোনা। এখন কিনলে একটা ফুলের গোড়া মানে কলার দিকটি মুখে দিয়ে দেখে আনতে হয়।

    Like

  6. vai ki lov lagailen akhon rastay rastay thor khojte hobe

    Like

  7. দেশে কলার মোচা খেয়ে খুব ভাল লেগেছিলো, সেই লোভে এখানে নিজে মোচা কিনে বাছাবাছি করতে গিয়ে দেখি, একেবারী এলাহী কান্ড! আর মোচা কেনার সাহস করিনি!

    শুনেছি, মোচাতে মশলা নাকি প্রায় গরু/খাশীর মশলার মতই দেয়া হয়, খেতেও মাংসের মতই হয়।

    Like

    • হা হা হা…। ধন্যবাদ রনি ভাই। আমিও শখে কিনেছিলাম কিন্তু রান্না শেষে খাবার পর মনে হয়েছে, কোথায় যেন কিছু বাদ পড়েছে।

      রান্নায় আপনিও অনেক এক্সপেরিমেন্ট করেন এটা আমি জানি/বুঝি।

      আমি আর একবার কলার মোচা নিয়ে চেষ্টা করব বলে ভাবছি।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  8. kolar mocha bhuna mogoj bhunar moto kore ranna korte hoy

    Like

  9. আমরা এই রান্নায় একটু মিষ্টি দি। আর রান্নার শেষে একটু নারকোল কোরা ওপর থেকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়।

    Like

  10. With havin so much written content do you
    ever run into any issues of plagorism or copyright violation? My website has
    a lot of unique content I’ve either created myself or outsourced
    but it appears a lot of it is popping it up all
    over the web without my permission. Do you know any ways to help reduce content from being ripped off?
    I’d certainly appreciate it.

    Like

  11. আপনি রান্না করেছেন মোচা; এটা থোর নয়. আমি Canada তে Chinese দোকানে can এ মোচা পাই যা রান্নার জন্য ready থাকে, বাছাবাছির ঝামেলা নাই. শুধু কুচিয়া নিয়ে সেদ্ধ করে উঠিয়ে রাখি. তারপর পিয়াজ হালকা ভেজে নিয়ে তাতে পাঁচফড়ন ও তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে কুচানো সেদ্ধ মোচা ভেজে তেল উঠায়ে তাতে নারকেল ও অল্প চিনি দিয়ে নেড়ে দুই মিনিট পর কিছু আধভাঙ্গা চীনাবাদাম ছড়ায়ে নামিয়ে নেই. খুব মজা হয়ে. ঠিক এভাবে থোরও রান্না করা যায়ে, কিন্তু এখানে থোর can এ পাওয়া যায় না.

    Like

  12. আপনি রান্না করেছেন মোচা; এটা থোর নয়. আমি Canada তে Chinese দোকানে can এ মোচা পাই যা রান্নার জন্য ready থাকে, বাছাবাছির ঝামেলা নাই. https://www.google.ca/search?hl=en&q=can+banana+blossom&tbm=isch&tbs=simg:CAQSYgmf1uxTPNtzZRpOCxCwjKcIGjwKOggCEhS6F88Roh2mHecNrBafHcoR-Q2xFxogpxZyQeONygVxrBgE7Pl81nNp46kgfVlXc6LesdopRnYMCxCOrv4IGgAMIQDMRQphlMmj&sa=X&ei=tRjnU8aKGoaVyATzn4GIAQ&ved=0CBkQ2A4oAQ&biw=320&bih=356. can থেকে বেড় করে ধুয়ে নিয়ে শুধু কুচিয়া সেদ্ধ করে পানি ঝরায়ে রাখি. তারপর পিয়াজ হালকা ভেজে নিয়ে তাতে পাঁচফড়ন ও তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে কুচানো সেদ্ধ মোচা ভেজে তেল উঠায়ে তাতে নারকেল ও অল্প চিনি দিয়ে নেড়ে দুই মিনিট পর কিছু আধভাঙ্গা চীনাবাদাম ছড়ায়ে নামিয়ে নেই. খুব মজা হয়ে. ঠিক এভাবে থোরও রান্না করা যায়ে, কিন্তু এখানে থোর can এ পাওয়া যায় না.

    Like

  13. পিংব্যাকঃ এক নজরে সব পোষ্ট (https://udrajirannaghor.wordpress.com) | BD GOOD FOOD

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s