Gallery

রেসিপিঃ আমের আঁচার (আমচুর টাইপ)


বর্তমানে দেশে আমের দিন চলছে। বাজারে কাঁচা আমের ধুম। দাম কেজি ২০ টাকা থেকে ৫০ টাকা, সাইজ বুঝে! আমের আচার বাঙ্গালীর একটা অন্যতম লোভনীয় খাবার। খাবারের সময় আচার হলে দুটো ভাত যে আরো বেশী খাওয়া যায়! কাঁচা আমের জনপ্রিয়তা প্রচুর। অনেক তরকারী সহ ডাল রান্নায় ব্যবহার করে থাকেন। আমার দিনে আমরাই কিছু আচার (টক মিষ্টি) বানিয়ে রাখি। আমার ছোট ছেলে আচার খেতে পছন্দ করে। গত বছর আচার বানিয়ে (আম এবং বোম্বাই মরিচ দিয়ে) বন্ধুদের উপহার দিয়েছিলাম। এবার আচারের নানা মশলাপাতির দাম দেখে আর বাসায় কিছু বলছি না। তবু আমার ব্যাটারী নিজদের জন্য কিছু আচার বানিয়ে রাখছেন। গত কয়েকদিনে কয়েক পদের আচার বানাতে দেখলাম।

আজ একটা সহজ আচারের রেসিপি দিচ্ছি, এটা পুরাই করেছেন বা আমাকে দেখিয়েছেন আমার ব্যাটারী। এটা অনেকটা আমচুরের মত। আমচুর যে যে কাজে ব্যবহার করা যায় এই আচারও সেই সেই কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে…। আমি এই আচার পছন্দ করলাম এই জন্য যে, ছোট মাছ রান্নায় আমি এটা ব্যবহার করব। ফ্রিজে অনেক দিন রেখে খাওয়া যাবে…। চলুন দেখে ফেলি।


ছবি ১ – কাঁচা আম গাছের ডালে! (নেট থেকে নেয়া ছবি)


ছবি ২ – কাঁচা আম ফালি ফালি করে কেটে ভাল করে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে।


ছবি ৩ – একটা থালায় শুকিয়ে যাওয়া আম গুলো নিয়ে তাতে মশলা মাখাতে হবে। মশলা গুলো হল – সরিষা বাটা, গুড়া মরিচ, শুকনা মরিচ (কয়েকটা), সামান্য হলুদ, লবণ (পরিমাণ মত) এবং খাঁটি সরিষার তেল (বেশী নয়, মাখা মাখা)।


ছবি ৪ – আবারো ভাল করে রোদে শুকিয়ে নিতে হবে।


ছবি ৫ – রোদে শুকিয়ে বেশ চমৎকার দেখাবে।


ছবি ৬ – ব্যস, কন্টেইনারে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। কাজের সময় বের করে কাজে লাগান। মন চাইলে খালিও খেতে পারেন।

কৃতজ্ঞতাঃ মানসুরা হোসেন।

Advertisements

24 responses to “রেসিপিঃ আমের আঁচার (আমচুর টাইপ)

  1. আরো বেশ কিছু আঁচার আসছে…।। কাঁচা আম থাকতেই আঁচার বানাতে হবে…।

    Like

  2. বাঙ্গালী হয়ে জন্ম নিলাম আর আচার দিয়ে ভাত, খিঁচুড়ী বা পোলাও না খেলে কি বাঙ্গালীয়ানা থাকে? আবার এর উপর আমের আচার !!!

    পরবর্তী আচারের রেসিপির অপেক্ষায়……………….

    আর পোস্টে ভাল লাগা তো আপনা আপনিই চলে আসে।

    Like

    • আমের যে কোন আঁচার, জলপাইয়ের আঁচার দিয়ে ভাত, খিঁচুড়ী বা পোলাও! মুখে জল এসে গেল। আহ…।।

      তবে কিছু সমালোচনাকারী/খাদ্য বিশ্লেষক বলেন, তরকারী স্বাদ না হলে নাকি আঁচারের ব্যবহার করা হয়!

      ধন্যবাদ আপনাকে…।

      Like

  3. দারুন তো!!!!

    রসুন বাটা দিলে বোধহয় স্বাদ আরেকটু বাড়বে।

    Like

  4. আমার লেখায় এখন খরা চলছে রান্নাতো ভাই।
    কুম্ভকর্ণকে নিয়ে খুবই দৌড়ের উপর আছিরে ভাই।
    দোয়া করবেন।

    Like

  5. খুব মজার হবে আশা করি, গ্রীষ্মের সময় এমন একটা খাবার!! অসাধারণ… শুভ কামনা রইল

    Like

  6. আগে দেখছি মা-খালারে…এখন দেখলাম সাহাদাত ভাইরে..;) অসাম..:)

    Like

    • হা হা হা…।
      ধন্যবাদ হাটুরে ভাই। আসলে আমার প্রচেষ্টা আমাদের খাবারের রেসিপি গুলো নেটে উঠিয়ে দেয়া যাতে দেশ বিদেশ থেকে কেহ সার্চ করলে অন্তত আমাদের রেসিপি গুলো দেখতে পায়। বাড়িতে গেলে আমি আরো কিছু আমাদের সাধারণ রেসিপি তুলে নিয়ে আসব, যা আমরা সচরাচর খেয়ে থাকি।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  7. দেখেই জিভে জল টল এনে বিদিগিচ্ছিরি অবস্থা করে ফেলেছি

    Like

  8. এই আচার কতদিন ঠিক থাকবে?????? ফ্রিজ এ রাখা লাগবে ?
    ????

    Like

  9. আমার বাড়ি রাজশাহী বিভাগে তাই আম সস্তা, প্রতি বছর আম্মা ২০-২৫ আমের আচার তৈরী করেন, বরইতো আছেই, কিন্তু ৩ মাসেই সব সাবাড়, বড় খাদক আমি

    Like

  10. ei recepi ta khujtesilam onek din dhore …………..jak …..dhonnobad apnake

    Like

  11. Dear vaia salam naben mango morabbr recepi ta ki kokhono post korechilen? Jodi patam upokar hoto.

    Like

  12. এটা আমি আমার হাজব্যান্ডকে অব্যশই বানিয়ে খাওয়াব।যদিও ও আমার রান্না করা বিচ্ছিরি খাবারও পছন্দ করে,আশা করি এটা ওর রিয়েলি ভালোলাগবে…

    Liked by 1 person

  13. আচার দেখে খেতে ইচ্ছা করছে

    Liked by 1 person

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s