গ্যালারি

রেসিপিঃ চ্যাপা শুঁটকী ভর্তা


খাবার টেবিলে বসলে আমরা বসলে আমরা কত পদের খাবার পাই। কিন্তু একবারও কি আমরা ভেবে দেখি কি করে, কি কি দিয়ে এই রকমারী খাবার তৈরী করা হয়। প্রতিটি পুরুষের এই ব্যাপারে চিন্তা করা দরকার। এক একটি খাবার তৈরী করতে একজন নারী তথা মা/বোন/স্ত্রী/মেয়েকে কত কষ্ট করতে হয়। খাবার খেয়ে আল্লাহর দরবারে শোকরিয়া জানানোর পাশাপাশি নারীদেরও সুনাম করা আমাদের উচিত এবং আমাদের যারা যতটুকু পারি রান্নাঘরেও তাদের সাহায্য করা উচিত।

আমি মনে করি, প্রতি পুরুষের রান্না জানা উচিত এবং সাপ্তাহে অন্তত একদিন রান্না ঘরে প্রবেশ করা উচিত। প্রথম প্রথম রান্না ভাল হবে না হয়ত কিন্তু এক সময়ে আপনি নিজেই নিজের রান্নার প্রেমে পড়ে যাবেন!

আমি সময় পেলেই রান্নাঘরে যাই। এখনো কত কিছু শেখার বাকী। আজ চলুন একটা সহজ ভর্তার রেসিপি দেখি। বছরে এক দুইবার আমরা এই ধরনের ভর্তা খেয়ে থাকি। যে কোন ভর্তা মুখের রুচি বাড়ায় বলে শুনেছি এবং চারটে ভাত আরো পরান ভরে খেতে পারা যায়। মাঝে মাঝে ভর্তা হলে, জমে বেশ। আজকে এমনই একটা ভর্তা, চ্যাপা শুঁটকী ভর্তা।

উপকরণঃ
– ২ টা চ্যাপা শুঁটকী (এই শুঁটকী বাজারে পাওয়া যায়)
– কিছু পেঁয়াজ কুচি
– কয়েকটা রসুন (পোড়া এবং পরে কুচি করে কাটা)
– কয়েকটা শুকনা মরিচ (পোড়া)
– পরিমাণ মত লবণ

প্রণালীঃ

সামান্য তেলে চ্যাপা শুঁটকী মচমচে করে ভেজে নিন।


উপকরণ গুলো সাজিয়ে নিন।


আলাদা ভাবে সব কিছু মেখে নিন এবং পরিমাণ মত লবণ দিয়ে এবার ভাল করে মেখে নিন।


ব্যস হয়ে চ্যাপা শুঁটকী ভর্তা। ভর্তায় ঝাল ভাল লাগে, কিন্তু ভেবে চিন্তে! ঝাল আবার আপনার বারটা বাজিয়ে দিতে পারে! হা হা হা…।

Advertisements

18 responses to “রেসিপিঃ চ্যাপা শুঁটকী ভর্তা

  1. আহ, আমার খুব প্রিয় একটা রেসিপি, সেই আন্ডা-বাচ্চাকাল থেকে। ভাত ছাড়াই খেয়ে ফেলতাম মনে আছে।

    Liked by 1 person

  2. জিভে জল আনবার জন্য আপনার প্রতি ক্ষোভ!!!

    ভর্তা হলে আমার কিছু লাগেনা। প্রতিদিন খাবারের আইটেমে আমার জন্য ১-২টা ভর্তা রাখা হয়। যেমন পুদিনা পাতা ভর্তা বা আলু ভর্তা অথবা ধনেপাতা ভর্তা। সত্যি বলেছেন, ভর্তা মুখের স্বাদ বাড়ায় অনেক।

    চমৎকার একটি পোস্ট সাহাদাত ভাই।

    Liked by 1 person

  3. আহ! কী দারুণ! (খাওয়ার আগেই স্বাদ নিয়ে নিলাম :D)

    Like

  4. আমি চ্যাপা ভর্তা পাটায় পিষে করি, তাতে কাটার কোন ভয় থাকেনা। আর ছোট্ট বক্সে ফ্রীজে রেখে বেশ ক’দিন খাওয়া যায়। এভাবে করলেও খুব মজা হয়।

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন, আপনার মত করেও আমাদের বাসায় মাঝে মাঝে বানানো হয়। আমি চ্যাপা শুঁটকী থেকে একটু দূরে থাকি বলে রেসিপিটা তুলে নেই নাই! হা হা হা…। হা, বেশ লাল এবং মিহিন হয়। গরম ভাতের সাথে বেশ মজার।

      এবার একদিন তুলে নিব। শুভেচ্ছা।

      Like

  5. শুঁটকী কি ভেজে নিতে হবে?

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন। ভাল করে ধুয়ে ভাঁজতে হবে। নাইলে যে গরান পাওয়া যাবে তাতে মুখে দেয়াই কষ্টকর হবে।

      যে কোন শুঁটকী মাছ ভাল করে ধুয়ে নিয়ে হয় এবং ভর্তার সময় ভাল করে ভেজে বা পুড়িয়ে নিতে হয়। আর রান্নার সময় অবশ্যই বেশী করে কষিয়ে নিতে হয়।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  6. শুটকি আমার খুব প্রিয় খাবার। বিশেষ করে কোন পরীক্ষা দেয়ার পর অথবা অসুখ থেকে উঠলে।
    আপনার রেসিপি ভালো লাগলো। একই পক্রিয়ায় চিংড়ি শুটকির ভর্তা বানানো যায়। পান্তা ভাত দিয়ে খেতে দারুন লাগে।

    শুভ কামনা।

    Liked by 1 person

  7. vaia photobucket er jonno dekha jacchena….. can u pls help me?

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন।
      ফটোবাকেটে ছবি রেখে লিঙ্ক দেয়াটা একটা পাপ হয়ে গেছে আমার। আমি যখন ছবি গুলো সেখানে রেখে পোষ্ট দিতে শুরু করি তখন তাদের এমন নিয়ম ছিল না। মালিকানা বদল হবার পর নুতন নিয়মে প্রতিটা একাউন্টের একটা নিদিষ্ট ব্যান্ডউইথ ফিক্স করে দেয়। মাসের শুরুতে সব দেখা যায়, ব্যান্ডউইথ শেষ হলে ছবি গুলো আর দেখায় না। কি যে করি? এদিকে সময় পাচ্ছি না, যে এই এত রেসিপির ছবি গুলো ট্রান্সফার করে আবার আপলোড করবো।

      তবে এটা করতেই হবে। মাসের শুরুতে সব পোষ্টের ছবি দেখায়।

      শুভেচ্ছা।

      Like

  8. vai.ajke rate ami ei sutkir vorta korase.awsome taste .basar sobai khub moja kore khyase.really ek ta tasty vorta, thanx vai. eto sundor recepie deoar jonno.

    Liked by 1 person

    • ধন্যবাদ বোন, অনেক পুরানো রেসিপি দেখার জন্য। আমি নিজেও এই ভর্তা অনেক দিন বানাই নি। মনে করিয়ে দেয়ার জন্য শুভেচ্ছা। বাসায় এই ধরনের ছোট ছোট রান্না চালিয়ে আনন্দ পাওয়া যায়। শুভেচ্ছা। গত কাল আমিও আদামনি পাতার ভর্তা করেছি, অনেকটা এই ধরনের। হা হা হা… হাতের কাছে শুঁটকী নেই। তাও দেখি আবার করা যায় কি না। শুভেচ্ছা।

      Like

  9. vai.apnake onek onek thanx.bekz ami thaki india chennai te..ami bangladeshi bangali.but study & husband home chennai te hoyate ami bangladeshi onek khabar kheta pari na.kintu apnar sob recepie dekhe ami try kori r amer indian sasurbari taste kore bole owowow. spl ei vorta.thanx.apni ro recepie upload korun.thnx

    Liked by 1 person

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s