Gallery

টাকি মাছ দিয়ে লাউ রান্না


লিখেছেনঃ সাহাদাত উদরাজী (তারিখঃ ২১ অক্টোবর ২০১১, ৯:৫১ অপরাহ্ন)

চতুরের জনপ্রিয় কমেন্টকারী বোন নাঈফা চৌধুরী অনামিকা নিঃসন্দেহে একজন খোলা মনের মানুষ। আমি বার বার তার পরিসংখ্যানের গিয়ে দেখি নতুন লেখা দিলেন কি না! না, লেখার চেয়ে তার কমেন্টি বেশী! একটু আগেও দেখে এলাম – ব্লগ লিখেছেনঃ ১০টি, মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৪৩৫টি, অন্যের ব্লগে মন্তব্য করেছেনঃ ৫০৫টি, নিজের ব্লগে মন্তব্য করেছেনঃ ১৮৬টি, সদস্য হয়েছেনঃ ২৫ সপ্তাহ ৫ দিন আগে। এত কম সময়ে অন্যের ব্লগে ৫০৫টি মন্তব্য করে তিনি বড় মনের পরিচয় দিয়েছেন। এর চেয়ে বড় কথা তার মন্তব্য গুলো আমি লক্ষ্য করে দেখেছি, তিনি মন্তব্য করেন পড়ে এবং বিশদ। যা আমাদের অন্যদের চেয়ে আলাদা। আবার কিছুদিন আগে ঝাঁপিয়ে পড়ে নাজমুল হুদা ভাইয়ের সরলরেখা-বক্ররেখার একটা পর্ব ও লিখে ফেলেছেন!

সে যাই হোক, জেনেছি কিছু দিন আগে তিনি অষ্ট্রেলিয়া মহাদেশ থেকে আরব মহাদেশে হিজরত করেছেন। সেখানে বাসায় বেড়াতে এসেছেন তার নানী শাশুড়ী, বেশ কিছুদিন নানী থাকবেন। শুনে বেশ চমৎকার লাগল। এদিকে তিনি আবার আমাকে এক ব্লগে বলেছিলেন তার নানীর জন্য শাক সবজির রেসিপি দেবার জন্য। ব্লগে শাক সবজির রেসিপি দেখে আবার কে কি বলে একটা ভাবনায় পড়ে গেলাম, যদিও অনেক শাক সবজির রেসিপি জমা করে ফেলেছি। ব্লগে রেসিপি মানেই মনে হয় বড় বড় মাছ, মুরগী, ছাগল, গরুর গোশতের নানা কাবাব, পলাউ, কোরমা, বিরিয়ানী ইত্যাদি ইত্যাদি।

হাতে সময় কম (আজ সারাদিনে আবার চতুরে প্রবেশ করা যায় নাই)। বোন নাঈফা চৌধুরী অনামিকার নানী শাশুড়ির জন্য একটা স্পেশাল আইটেম হয়ে যাক। টাকি মাছ দিয়ে লাউ রান্না। লাউকে অনেকে বলেন কদু আর কদু মানে বেহেস্তের মধু! আপনি বেহেস্তে গেলে লাউ দিয়ে তরকারী পাবেন নিঃসন্দেহে!


উপকরনঃ
– কিছু টাকি মাছ
– পনে এক কেজি ওজনের একটা কচি লাউ
– কিছু (সাত আট চামচ) তেল
– দুই চামচ রসূন বাটা
– কিছু পেঁয়াজ কুচি
– এক চামচ লাল মরিচ গুড়া
– সামান্য হলুদ
– লবন (পরিমান মত)
– কাঁচা মরিচ
– ধনিয়া পাতা

প্রনালী ছবি সহ যোগেঃ

কড়াইতে তেল দিয়ে গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুচি ও রসূন দিয়ে ভাঁজতে থাকুন।


টাকি মাছ ও লাউ (ত্রিমার্ত্রিক ভাবে) কেটে হাতের কাছে রাখুন।


লাল মরিচ, হলুদ (না দিলেও চলে), লবন ও কাঁচা মরিচ দিয়ে কষিয়ে সামান্য পানি দিয়ে ঝোল বানিয়ে ফেলতে হবে।


এবার টাকি মাছ গুলো দিয়ে দিতে হবে। ভাল করে সিদ্ব করে টাকি মাছ গুলোকে আবার উঠিয়ে নিতে হবে কারন টাকি মাছের কাটা বেঁছে ফেলতে হবে।


টাকি মাছের কাটা এভাবে খুব সহজেই বেছে ফেলা যেতে পারে।


কাটা বাঁচার পর টাকি মাছ গুলো রেখে দিতে হবে।


কড়াইতে বেঁচে থাকা ঝোলে লাউ নামিয়ে দিন।


লাউ মজতে থাকবে। প্রয়োজনে কিছু পানি দিতে পারেন। দাঁড়িয়ে দেখতে থাকুন। লাউ বেশী মজে গেলে আবার খেতে ভাল লাগবে না। সুতারং সাবধান।


কাঁটা বিহীন জমিয়ে রাখা টাকি মাছ ঢেলে দিন এবং ভাল করে মিশিয়ে দিন।


মিনিট পাঁচেক আগুনে জ্বাল দিয়ে লবন দেখে নিন, না হলে দিন হলে বলুন ‘ওকে’। পরিমান মত ধনিয়া পাতা তরকারীর উপরে ছিটিয়ে দিয়ে দিন।


ব্যস হয়ে গেল ‘টাকি মাছ দিয়ে লাউ রান্না’।

বিশ্বাস করুন আর নাই করুন। এমন স্বাদ আর সুস্বাদু হয়েছিল যে, আমরা বাপ বেটা পুরো এক বাটি সাবাড় করে দিয়েছি! বোন নাঈফা চৌধুরী অনামিকা, আমি নিশ্চিন্ত যে – আপনি যদি একটু কষ্ট করে এই রান্নাটা আপনার নানী শাশুড়ীকে খাওয়াতে পারেন তিনি আপনার প্রশংসা করেই যাবেন আমৃত্যু!

10 responses to “টাকি মাছ দিয়ে লাউ রান্না

  1. রেসিপিটা চতুরে প্রকাশিত এবং সাড়া জাগানো ছিল।

    Like

  2. পিংব্যাকঃ রেসিপিঃ চিংড়ী মাছ দিয়ে লাউ রান্না (সাধারন লাউ/কদু রান্না) | রান্নাঘর (গল্প ও রান্না)

  3. আজ লাউ রান্নার আর একটা রেসিপি লিখে ফেললাম। এটা রান্না হয়েছে চিংড়ী মাছ দিয়ে। আপনারা চাইলে দেখে নিতে পারেন।
    লিঙ্কঃ http://wp.me/p1KRVz-oy

    Like

  4. পিংব্যাকঃ রেসিপিঃ চিংড়ী মাছ দিয়ে লাউ রান্না (সাধারন লাউ/কদু রান্না) | OntoreBangladesh

  5. নাঈফা চৌধুরী অনামিকার উদ্দেশে এই পোষ্ট লেখা হয়েছিল বলে জানা গেলো। কিন্তু তার চোখে কী এই পোষ্ট পড়েছে? বুঝা যায় না! নাঈফার নানী শ্বাশুড়ি এই খাবার কেমন পছন্দ করেছেন, তাও বুঝবার উপায় নেই কোন!!

    Like

  6. আচ্ছা! আমার আবার অনেক কথা, সব কথা সব সময় মনে থাকে না।

    Like

  7. পিংব্যাকঃ রেসিপিঃ সহজ লাউ রান্না শিক্ষা! | রান্নাঘর (গল্প ও রান্না) / Udraji's Kitchen (Story and Recipe)

  8. thnks shahadat vai for this recipe…specially for step by stem images
    nice work…

    Like

[প্রিয় খাদ্যরসিক পাঠক/পাঠিকা, পোষ্ট দেখে যাবার জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা। নিম্মে আপনি আপনার মন্তব্য/বক্তব্য কিংবা পরামর্শ দিয়ে যেতে পারেন। আপনার একটি একটি মন্তব্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে কয়েক কোটি বার। আপনার মন্তব্যের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। অনলাইনে ফিরলেই আপনার উত্তর দেয়া হবে।]

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s