হারামজাদাদের দখলেঃ সাহাদাত উদরাজী


হারামজাদাদের দখলেঃ সাহাদাত উদরাজী

বাড়ীর পাশে ছোট একটা মাঠ ছিল
ভরদুপুরেও শিশুরা খেলত,
ইট বালুর পাহাড় করে আজকাল
তাও হারামজাদারা দখল করে নিয়েছে!

বড় রাস্তার দুই ধারের আট ফুটের ফুটপাত
গরিব দুঃখী মানুষের চলাচলের একমাত্র উপায়,
ভাড়ায় দোকান বসিয়ে, কৃষকের ছেলেকে শহুরে এনে
ওই হারামজাদারা তুলে নিচ্ছে শত কোটি কাঁচা টাকা!

বিশ মিনিটের পথ দুই ঘন্টা পাড়ি দিয়ে
এসে যে জেলখানার মত অফিসটায় বসি,
তাও এক হারামজাদার বানানো
অন্য কিছু হারামজাদা তাও সারাক্ষন পাহারা দিয়ে রাখে!

ছাপান্ন হাজার ছয় শত আটান্ন বর্গ মাইলের
এই প্রান প্রিয় দেশটাকে ভেবে দেখি,
ভন্ড রাজনীতির কথা বলে
ওই হারামজাদারা লুটে পুটে দখলে রেখেছে!

এই হারামজাদাদের নিজদের গৌয়ারতুমিতে
অন্যের সুখ হারাম!
একজন সাধারন চিন্তার খোলা মানুষ
পথে, ঘাটে, হাটে কিংবা সাদা পাতায় বড় অসহায়!

‘সব কিছু নষ্টদের দখলে’
প্রিয় কবি এদের ‘নষ্ট’ বললেও আমি সরাসরি বলি ‘হারামজাদা’!

(২০১২ সালের মার্চ মাসের লেখা)